বাড়ি স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা *ভাবনার বিষয়, এসি থেকে কি করোনা ছড়ায়!*

*ভাবনার বিষয়, এসি থেকে কি করোনা ছড়ায়!*

9
*ভাবনার বিষয়, এসি থেকে কি করোনা ছড়ায়!*

*প্রচণ্ড গরমে ঘরে সারাক্ষণ এয়ার কন্ডিশনার বা এসি চলছে। এসিতে থাকলেই নাকি করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা বেশি। অনেকের মুখেই এই কথা শোনা যায়। কিন্তু এটি কতটা সত্যি! বিশ্ব সাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসে সংক্রমণের ঝুঁকির বিষয়ে বেশ কয়েকটি নির্দেশনা দিয়েছে। এই নির্দেশনা থেকেই জানা যাবে, এসি থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি কতটুকু?*

*সারাক্ষণ এসিতে বসে থাকা ধনীরাই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন, এমন তির্ষক মন্তব্য করছেন অনেকে। বিতর্কেও জড়াচ্ছেন। কিন্তু এটা কতটা সত্যি, না গুজব? এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট ধারণা দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন।*

*বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সতর্কতা অনুযায়ী, বন্ধ পরিবেশে রোগ ছড়ানোর সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এসি থেকে করোনা হয় না। তবে এসিতে সব দরজা জানালা বন্ধ থাকায় অন্যদের কাছ থেকে করোনা সংক্রমণে ঝুঁকি থাকে।*

*পরিচ্ছন্ন, আলো-বাতাস পরিপূর্ণ ঘরে করোনা হওয়ার সম্ভাবনা তুলনামূলক কম। কারণ, ঘরে আলো-বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা ভালো থাকলে অক্সিজেনের অভাব ঘটে না। শ্বাসপ্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকে।*

*করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির কাছাকাছি থাকলে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তাই এসি ঘরে একা থাকা বা সুস্থ ব্যক্তির সঙ্গে থাকা ঝুঁকিপূর্ণ নয়। তবে ঘরের ভেতর অনেক লোকজন থাকলে চেষ্টা করুন দরজা-জানালা খোলা রাখার।*

*অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে সংক্রমণ বাড়ে জানিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, প্রচণ্ড গরমে এয়ার কন্ডিশন চালালে তা পরিষ্কার রয়েছে কি না, তা দেখে নিতে হবে। নিয়মিত সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করা হলে এসি থেকে ভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা থাকে না।*

*সারাক্ষণ এসি চালিয়ে রাখলে অনেকেই ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। এতে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যায়।*

*ঘরে রোদ-আলো-বাতাস চলাচল কমে গেলে শরীরে প্রয়োজনীয় ভিটামিন-ডির অভাব দেখা দিতে পারে, যা করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ায়। তাই এসিতে থাকলেও দিনের কিছুটা সময় রোদ পোহানোর ব্যবস্থা রাখুন। নিয়মিত ঘর স্যানিটাইজ করতে হবে।*

*বাড়িতে করোনা সংক্রমিত রোগী থাকলে তার আলাদা ঘরে এসি না থাকাই ভালো। কারণ, তার ঘরে বাতাস চলাচল স্বাভাবিক রাখা প্রয়োজন। তা না হলে রোগীর ড্রপলেট ঘরেই থেকে যায়। বাড়ির অন্যদের সংক্রমণ ঝুঁকি বাড়ে। রোগীর ঘরে যত আলো-বাতাস চলাচল করবে, ততই দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।*

পূর্ববর্তী নিবন্ধ*পুরুষে রূপান্তরিত হলেন অভিনেত্রী এলেন পেজ* 
পরবর্তী নিবন্ধ*পাইলটের সাজা মিললো উড়ন্ত বিমানে পর্ন ভিডিও দেখায়*