প্রচ্ছদ বিনোদন *যৌ’নপল্লীতে খদ্দের নেই, রোজগারও বন্ধ*

*যৌ’নপল্লীতে খদ্দের নেই, রোজগারও বন্ধ*

56
*যৌনপল্লীতে খদ্দের নেই, রোজগারও বন্ধ*

*ক’রোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে খদ্দের নেই যৌ’নপল্লীতে। আর ল’কডাউন কেড়ে নিচ্ছে দু’মুঠো ভাতের জোগানও। তেমনই এক যৌ’নকর্মী মিগনোনের চোখে এখন ছায়া ফেলেছে মৃত্যু।*
*রুয়ান্ডার যৌ’নকর্মী মিগনোনে। বয়স পঁচিশ বছর। অল্প বয়সে বাধ্য হয়েই এই পেশায় এসেছিলেন। আজ করোনার দিনে খাবার জোগাড়ের টাকাটুকু তাঁর নেই।*
*এই মেয়েদের জীবনের যুদ্ধ যেন গল্প উপন্যাসকেও হার মানাবে। ভাত জোটাতে শরীর বেচেছেন যত্রতত্র। বাধিয়েছেন এই’ডস-এর মতো রোগ। আর আজ এই করোনার দিনে তারা পড়েছেন খুবই বিপদে।*

*খাবার ছাড়াই এইচআইভি-র ওষুধ খেতে হচ্ছে। যার ফল, সারাদিন বমি পাওয়া, মাথা ঝিমঝিম, দুর্বলতা। মিগনোনের কথায় বললে, রোজ একটু একটু করে মরে যাওয়া।*
*মিগনোনে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “খালিপেটে এই ওষুধ খাওয়া ওষুধ না খাওয়ারই সামিল। এভাবে চললে মরতে হবেই।”*
*করোনার মধ্যে গোটা আফ্রিকা মহাদেশের জীবনযুদ্ধের ছবিটা এমনই। সমীক্ষায় বারবার উঠে আসছে, খাদ্যের অনিশ্চয়তায় মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন কয়েক লক্ষ যৌনকর্মী। ল্যানসেটের গবেষণাপত্রে একদল বিজ্ঞানী স্বীকার করছেন সমাজের সবচেয়ে বিচ্ছিন্ন অংশ এই যৌনকর্মীরাই।*

*রুয়ান্ডার এক চিকিৎসক অ্যাফ্লডিস সংবাদমাধ্যমকে বলছিলেন, ‘‘আফ্রিকার দেশগুলিতে ১২ হাজারেরও বেশি এইচআইভি আক্রান্ত যৌনকর্মী রয়েছেন। আমরা বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেও এইচআইভির চিকিৎসা থেকে মুখ ফেরাচ্ছেন তাঁরা। এই অবস্থায় সরকারের সঙ্গে কথা বলছেন তাঁরা, যাতে যৌনকর্মীরা নূন্যতম খাবারটুকু পান।’’*
*আর যৌনকর্মীরা যেন জেলখানায় বন্দি। যৌনপল্লি থেকে বেরোনোর পথ বন্ধ। খদ্দের নেই তাই রোজগারও বন্ধ। সূত্র : নিউজ ১৮।*

*’সামান্য ভুলে’ টিকটক তারকার অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল*
*বর্তমান যুগ সামাজিক মাধ্যমের যুগ। স্মার্ট ফোনে ধারণ করা যে কোনো ছবি বা ভিডিও সারা বিশ্বের দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ে। আর সেই ভাইরাল ছবি বা ভিডিও এর কারণে রাতারাতি তারকা বা খলনায়ক হয়ে যায় যে কেউ। আবার কোনো কোনো ভিডিও ও ছবি যেমন সোশ্যাল মিডিয়াকে ভাবিয়ে তোলে তেমনই অনেক পোস্ট খারাপ সময়েও মন ভাল করে দেয়।*
*এই সামাজিক মাধ্যমের যুগে ভাইরাল হতে চায় অনেকেই। ভাইরাল হতে চেয়ে জঘন্য থেকে জঘন্যতম কাজ করে ফেলে অনেকেই। আবার অনেকের এক মুহূর্তের ছোট্ট একটা ভুল তার নেগেটিভ পাবলিসিটি তৈরি করে। এমনটাই হয়েছে টিকটক স্টার নিশা গুরাগেন এর ক্ষেত্রে। তার ছোট্ট একটা ভুলের কারণে হঠাৎ করেই ইন্টারনেটে তার ভিডিও ভাইরাল।*

*সামাজিক মাধ্যমে প্রেমিকের সাথে নিশার অন্তরঙ্গ মুহুর্ত ফাঁস হয়ে গেছে। বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে এই একান্ত ব্যক্তিগত ভিডিও। যা নিয়ে মুখ খুলেছেন নিশাও। সে জানিয়েছে ভিডিওটি ভুল করে স্ন্যাপচ্যাটে আপলোড হয়ে যায়। তারপর এক ভক্ত সেই ভিডিও ডাউনলোড করে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করে দেয়।*
*যদিও একই সাথে নিশা জানিয়েছেন, যারা এই কাজটি করেছেন, তারাও যেমন খুশি, ঠিক তেমনই আমিও খুশি। যদিও তার এই ভিডিও এর ব্যাপারে প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা। কেন এবং কিসের জন্য এই ভিডিও রেকর্ড করা হয়েছে তাও জানতে চেয়েছেন তারা।*
*অনেকেই মনে করছেন নেগেটিভ পাবলিসিটি পাওয়ার জন্যই এই চেষ্টা। যদিও সামাজিক মাধ্যমে অন্য একটি বার্তায় নিশা জানিয়েছেন, তিনি ডিপ্রেশনে আছেন।*
*২২ বছর বয়সী নিশা মুম্বাইয়ে থাকেন। টিকটকে দারুণ জনপ্রিয় তিনি।*