প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *জুম্মায় মসজিদে মুসল্লিদের ভিড়*

*জুম্মায় মসজিদে মুসল্লিদের ভিড়*

27
*জুম্মায় মসজিদে মুসল্লিদের ভিড়*

*মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে মসজিদে নামাজ পড়ার ওপর বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার পর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের অনেক মসজিদেই আজ ছিল মুসল্লিদের ভিড়। রমজান মাসের পবিত্র জুম্মা মসজিদে গিয়ে আদায় করতে অনেকের মধ্যে ব্যাকুলতা লক্ষ করা গেছে। আর এর ফলে দেশের অনেক মসজিদেই সঠিকভাবে মানা যায় নি স্বাস্থ্যবিধি। জানা গেছে, শহরাঞ্চলের বেশিরভাগ মসজিদে স্বাস্থ্যবিধি মানা হলেও গ্রামাঞ্চলে সেটা সম্ভব হয়নি।*
*তবে প্রায় সব মসজিদেই প্রবেশের আগে সবার হাত ধোয়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে সবাই মাস্ক পরছেন কিনা সেটা নিশ্চিত হয়েই মসজিদে প্রবেশ করতে দেয়া হয়েছে।*

*প্রসঙ্গত যে, প্রাণঘাতী করোনার সংক্রমণ রোধে জনসমাগম এড়াতে মসজিদে না এসে ঘরে নামাজ আদায় করার নির্দেশ দেয়ার পর শুধুমাত্র নির্দিষ্ট সংখ্যক মুসল্লি নিয়ে নামাজ হতো। এজন্য মসজিদে জামায়াত চালু রাখার প্রয়োজনে খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেম মিলে পাঁচ ওয়াক্তের নামাজে অনধিক পাঁচজন এবং জুমার জামায়াতে অনধিক ১০ জন শরিক হতে পারতেন। কিন্তু সম্প্রতি এই বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার পর আজই ছিল প্রথম জুম্মা।*

*ছদ্মবেশে মসজিদে ধ’র্ষকের সাথে নামাজ পড়ল পুলিশ, অতঃপর…*
*চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে ধ’র্ষণ মামলার এক পলাতক আসামি সেলিম রেজাকে (২৬) ছদ্মবেশে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে নেজামপুর ইউনিয়নের এক মসজিদে নামাজ শেষে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সেলিম রেজা জেলার নাচোল উপজেলার নেজামপুর ইফপির নেজামপুর কাঁঁঠালিয়া পাড়ার মৃ’ত দবির উদ্দিনের ছেলে।*

*পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৮ মাস আগে সেলিম রেজার সাথে একই উপজেলার এক মেয়ের পরিচয় হয়। এরই সুবাদে ওই মেয়েকে ঢাকার আশুলিয়ার কাশিমপুর এলাকার এক কোম্পানিতে চাকরি পাইয়ে দেয় এবং মেয়েটিকে বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক করার প্রস্তাব দেয় সেলিম রেজা। কিন্তু মেয়েটি সেলিমের কুপ্রস্তাবে রাজি না হয়ে এক পর্যায়ে চাকরি ছেড়ে গত নভেম্বর মাসে নিজ বাড়ি নাচোলে চলে আসে। পরে চলতি বছরের ২৩ মার্চ নেজামপুর বাজারে মেয়েটির সাথে আবারো সেলিমের দেখা হলে তাকে নতুন একটি চাকরি আছে মর্মে সন্ধ্যায় সেলিম তার বাড়িতে নিয়ে যায় এবং মেয়েটিকে ধ’র্ষণ করে।*

*এ ঘটনায় নাচোল থানায় সেলিমের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করার পর ধ’র্ষক সেলিম গা ঢাকা দিলে পুলিশ তাকে ধরতে অভিযান চালায়। এরই একপর্যায়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে নাচোল থানার এসআই সোহেল রানা মুসল্লীর ছদ্মবেশে নেজামপুরে একটি মসজিদে নামাজ শেষে সেলিম রেজাকে গ্রেফতার করে।*
*এ বিষয়ে নাচোল থানার অফিসার ইন’চার্জ সেলিম রেজা জানান, ভুক্তভোগী মেয়ের অভি’যোগের ভিত্তিতে সেলিমকে গত বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করা হয়। আজ শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।*