প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *পুলিশের ৫৮ সদস্য ক’রোনায় আ’ক্রান্ত, কো’য়ারেন্টাইনে ৬৩৩*

*পুলিশের ৫৮ সদস্য ক’রোনায় আ’ক্রান্ত, কো’য়ারেন্টাইনে ৬৩৩*

19
*পুলিশের ৫৮ সদস্য করোনায় আক্রান্ত, কোয়ারেন্টাইনে ৬৩৩*

*কো’ভিড-১৯ করো’নাভাইরাস তাণ্ডবে বিশ্বে এখন পর্যন্ত দেড় লক্ষাধিক মানুষের মৃ’ত্যু হয়েছে। আ’ক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২২ লাখ। সারা বিশ্বের ২ শতাধিক দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে এই ম’হামারী। বাংলাদেশেও এই ভাই’রাসে মৃ’ত্যু ও আ’ক্রান্তের সংখ্যা আ’শঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। এরই মধ্যে ৭৫ জনের মৃ’ত্যু হয়েছে, আর আ’ক্রান্ত ছাড়িয়েছে ১৮শ’। এই পরিস্থিতিতে ঝুঁকি নিয়ে মাঠে রয়েছেন পুলিশ সদস্যরা। দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য করোনায় আ’ক্রান্ত হয়েছেন।*

*পুলিশ সদর দপ্তর এবং ডিএমপি সূত্র গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, ইতিমধ্যে ৫৮ পুলিশ সদস্যের করোনায় আ’ক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ২৭ জন ডিএ’মপিতে, ১১ জন গোপালগঞ্জে, ছয়জন নারায়ণগঞ্জে, পাঁচজন গাজীপুর মহানগর পুলিশে, দুজন কিশোরগঞ্জে এবং একজন করে ময়মনসিংহ, নরসিংদী, চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ, পুলিশ টিঅ্যা’ন্ডআইএম, এপিবিএন ময়মনসিংহ, নৌ পুলিশ ইউনিট ও অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের সদস্য।*

*আক্রান্তের এ সংখ্যা আরও বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। সংক্রমণের ঝুঁকিতে আছেন এমন ৬৩৩ পুলিশ সদস্যকে ‘হোম’ ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। দেশজুড়ে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত, লকডাউন কার্যকর, রাস্তায় জীবাণুনাশক ছিটানো, শ্রমজীবী মানুষকে সহায়তা করা, চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়াসহ নানা দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে পুলিশ সদস্যরা আ’ক্রান্ত হচ্ছেন বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা।*
*পুলিশের মুখপাত্র সহকারী মহাপরিদর্শক সোহেল রানা গণমাধ্যমকে বলেন, পুলিশের যেসব সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের পুলিশের স্থানীয় চিকিৎসাকেন্দ্র গুলোতে আই’ইডিসিআর এর নিয়ম অনুসরণ করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাদের আইসো’লেশনে রাখা হচ্ছে। কারও শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তখন আই’ইডিসিআর যে হাসপাতালগুলোকে করোনা চিকিৎসার জন্য নির্ধারণ করে দিয়েছে সেগুলোতে স্থানান্তর করা হবে।*

*করোনায় মৃ’ত্যু দেড় লাখ ছাড়ালো*
*বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃ’ত্যু দেড় লাখ ছাড়িয়ে গেল। এক সপ্তাহের ব্যবধানে মৃ’ত্যু বাড়লো আরও ৫০ হাজার। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃ’তের সংখ্যা নিয়ে প্রতি মুহূর্তের আপডেট জানানো ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত করোনায় মোট মৃ’তের সংখ্যা ১ লাখ ৫২ হাজার ৫২৬ জন।*
*১১ এপ্রিল করোনায় মৃ’তের সংখ্যা পার হয় ১ লাখ। ওই সময় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৬ লাখ ৫০ হাজার ছুঁই ছুঁই। এরপর জ্যামিতিক হারেই বাড়তে তাকে মৃ’ত এবং আক্রান্তের সংখ্যা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে দেড় লাখে এবং আক্রান্ত বেড়ে ২২ লাখ ২৫ হাজার ৯১৬ জন। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৬৭ হাজার ২৭৯ জন সুস্থ হয়েছেন।*

*এখনও পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বিধ্বস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। পৃথিবীর শক্তিধর এই দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৭ লাখ (৬ লাখ ৮৫ হাজার ৫৪১ জন)। মৃ’ত্যু ৩৫ হাজার ৫০০ জনের। গতকাল একদিনেই যুক্তরাষ্ট্রে মৃ’ত্যু হয়েছে সাড়ে চার হাজারের বেশি মানুষের। মৃ’তের সংখ্যার দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইতালি। দেশটিতে আক্রান্ত ১ লাখ ৭২ হাজার ৪৩৪ জন। মৃ’ত্যু হয়েছে ২২ হাজার ৭৪৫ জনের। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে স্পেন। ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬৮ জন আক্রান্ত। মৃ’ত্যু হয়েছে ১৯ হাজার ৪৭৮ জনের। ফ্রান্সে মৃ’ত্যু হয়েছে ১৭ হাজার ৯২০ জনের। আক্রান্ত ১ লাখ ৬৫ হাজার ২৭ জন। যুক্তরাজ্যে মোট মৃ’তের সংখ্যা ১৪ হাজার ৫৭৬ জন। আক্রান্ত ১ লাখ ৮ হাজার ৬৯২ জন। জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪৫৬ জন। মৃ’ত্যু ৪ হাজার ১৯৩ জনের। এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি মৃ’ত্যু ও আক্রান্ত ইরানে। ইরানে আক্রান্ত ৭৯ হাজার ৪৯৪ জন। মৃ’ত্যু হয়েছে ৪৫৫৮ জনের।*