প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *একজন ঢাকা বি’শ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের কথার কি ছিরি!*

*একজন ঢাকা বি’শ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের কথার কি ছিরি!*

73
*একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের কথার কি ছিরি!*

*বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসকে আল্লাহর গজব বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। গতকাল সোমবার নিজের ফেসবুক পেজে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি এ মন্তব্য করেন।*
*স্ট্যাটাসে আসিফ নজরুল লিখেন, ‘করোনাকে আমি আল্লাহর গজব বলে মনে করি। তবে এটি শুধু কোনো বিশেষ ধর্ম বা বিশেষ অঞ্চলের প্রতি গজব না। সমগ্র মানবজাতির প্রতি গজব এবং পরিশুদ্ধির ডাক।’*

*ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষক আরও লিখেন, ‘আল্লাহ আমাদের অন্তরের কালিমা দূর করে দিন। সুমতি দিন। আপনার রহমত পাওয়ার যোগ্যতা দিন। আল্লাহ আমাদের আপনি মাফ করে দিন।’*
*এদিকে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নতুন সংক্রমিতদের মধ্যে ২০ জনই ঢাকার। আর নারায়ণগঞ্জে সংক্রমিত হয়েছে ১৫ জন। এই নিয়ে গত ৮ মার্চের পর থেকে এখন পর্যন্ত দেশে এ ভাইরাসে মোট সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬৪ জনে।*
*এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে আরও পাঁচজনের। নতুন মৃতদের মধ্যে দুজন ঢাকার এবং তিনজন ঢাকার বাইরে বিভিন্ন জেলার। এই নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১৭ জনে।*

*ধর্মটা কার জন্য? মানুষই যদি না বাঁচে*
*মানুষ আগে না ধর্ম আগে, ধর্মটা কার জন্য? মানুষই যদি না বাঁচে। আমি সরকারকে সাধুবাদ জানাই, দেশের এমন মুহূর্তে গুরুত্বপূর্ণ এই সিদ্ধান্তটি নেওয়ার জন্য। উন্নত বিশ্বগুলো যেখানে লোক সমাগম বন্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে। তাছাড়া মুসলিম দেশগুলোও ইতিমধ্যে মসজিদে নামাজ আদায়ের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। সেখানে আমরা কেন…। করোনাভাইরাসের এ ক’দিন আপনারা সবাই নিজ নিজ ঘরে নামাজ আদায় করুন। বেশি বেশি করে আল্লাহকে ডাকেন। এই মহামারি থেকে আল্লাহ যেন আমাদের মুক্তি দেয়।*

*আমরা যদি নিজেরা নিজেদের ঠিক না করি, তবে কি অন্য কেউ আমাদের ঠিক করতে পারবে? করোনাভাইরাস মহামারির এই সময়ে সবাই যখন ঘরে থাকতে, বারবার হাত ধোওয়া, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা, জনসমাগম এড়িয়ে চলার জন্য বলছেন, তখন আমরা করছি তার উল্টোটা।*
*বিশ্ব এখন কঠিন সংকটে। বিভিন্ন সংবাদে আমরা দেখছি, উন্নত বিশ্বগুলো করোনার কারণে হিমশিম খাচ্ছে। সরকার সাধারণ জনগণকে ঠিকমতো সেবা দিতে পারছে না। উন্নত বিশ্বগুলোর এই হাল হলে আমাদের কী হবে?*

*আমি সবাইকে উদ্দেশ্য করতে বলতে চাই। দয়া করে আপনারা নিরাপদ থাকুন, আপনার ও আপনার পরিবারের জন্য, দেশের মানুষের জন্য। সচেতন না হলে, সামনে ভয়াল বিপাদ আসছে। এ থেকে আমি আপনি কেউই মুক্তি পাবো না। দয়া করে, ঘরে থাকুন। প্রয়োজন না হলে ঘর থেকে বের হবেন না। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন এবং সরকারের দেওয়া পরামর্শ মেনে চলুন। সরকার কিংবা আমাদের কথা না, নিজের ও পরিবারের কথা ভেবে দয়া করে সচেতন হোন।*