প্রচ্ছদ বিশ্ব *ভারতে ক’রোনা আ’ক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়াল*

*ভারতে ক’রোনা আ’ক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়াল*

17
*ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়াল*

*শুক্রবার একদিনে ৫০০ এরও বেশি মানুষ ভারতে নতুন করে ক’রোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। সরকারি হিসাব অনুযায়ী, শুক্রবার করোনায় মৃ’ত্যু হয়েছে ১২ জনের। করোনা মহামারী ভারতে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে এটাই একদিনে সর্বাধিক মৃ’ত্যুর ঘটনা।*
*ভারতে একদিনে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা শুক্রবার সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিল। ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ৫০০জন! সেদেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩০৮২। এখনও পর্যন্ত মৃ’ত্যু হয়েছে ৬৮ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৬২ জন।*

*এরই মধ্যে মিডিয়ার একাংশে উঠে এসেছে এক উদ্বেগের বিষয়। এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে দেশ থেকে লকডাউন ওঠার কথা, এ দিকে আইসিএমআরের একটি সূত্র দাবি করেছে, এপ্রিলের শেষেই ভারতে সংক্রমণের হার সব থেকে বেশি হতে পারে! যদিও সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি এখনও।*
*সংক্রমণের নিরিখে এদিনও বাকিদের থেকে এগিয়ে রইল তামিলনাড়ু, মহারাষ্ট্র এবং দিল্লি। তামিলনাড়ুতে শুক্রবার নতুন করে ১০২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সেই রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪১১ জনে পৌঁছেছে! মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত ৪৯০! সে রাজ্যে এদিন ৬৭ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। অধিকাংশই মুম্বাইয়ের বাসিন্দা। দিল্লিতে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৯১ জন! করোনা পজিটিভ মার্কিন দূতাবাসের এক কর্মকর্তাও। দিল্লিতে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ৩৮৪ জন।*

*রাজস্থান, হরিয়ানা, কেরালা, জম্মু-কাশ্মীর- ভারতের প্রায় সব প্রান্ত থেকেই এ দিন বহু ব্যক্তির করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর এসেছে। জম্মু-কাশ্মীরে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৫ হয়ে যাওয়ার পর সেখানকার ৩৪টি এলাকাকে ‘রেড জোন’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৪টি এলাকা কাশ্মীর ডিভিশনে, ১০টি জম্মুতে। এই সমস্ত এলাকায় সাধারণ জনজীবনের উপর বিধিনিষেধ কড়া করা হয়েছে। সূত্র: এই সময়*

*ফল ও শাকসবজিতে থুথু দেয়া করোনা আক্রান্ত নারী গ্রেফতার!*
*করোনা পজেটিভ এক চীনা নারী অস্ট্রেলিয়ার সুপার মার্কেটে ফল ও শাকসবজিতে থুথু দেয়ার কারণে গ্রেফতার হয়েছেন। সিডনি সুপার মার্কেটে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।*
*গ্রেফতারের ভিডিওটি মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।*

*ভিডিওটি প্রথমে টিকটকে পোস্ট করা হয়েছিল পরে তা সরানো হয়েছে। গত ২৫ মার্চ ভিডিওটি টুইটারে ক্যাপশনসহ পোস্ট করেন বিতর্কিত অস্ট্রেলিয়ান ক্রীড়া ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব স্যাম নিউম্যান। ক্যাপশনে তিনি লিখেন, “বর্ণবাদী”, শুনেছি আপনি চিৎকার করছেন।” পরে অবশ্য তিনি টুইটটি মুছে ফেলেন।*
*অনেক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীই বলছেন, দুইটি ঘটনাকে এক সঙ্গে এডিট করার পর তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা হয়েছে।*

*ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, ৫৪ বছর বয়সী একজন নারী সিডনি সুপার মার্কেটে শপিং করে গিয়ে ফল ও শাকসবজিতে থুথু দেন। বিষয়টি ওই সুপার শপের সিসি ক্যামারায় ধরা পড়ে। এরপরই পুলিশ তাকে ধরে ফেলে। তবে এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পরে জানা গেছে যে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি পৃথক ঘটনা থেকে দু’জন নারীকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ভিডিওটি এডিট করা হয়েছিল। ভিডিও’র প্রথম অংশটি সিডনির উত্তরে অবস্থিত গর্ডনের।*

*গত ১৯ মার্চ ওই নারী পুলিশের নির্দেশনা অনুসরণ করতে অস্বীকার করেছিলেন। তাকে গ্রেফতার করা হলেও পরে বিনা অভিযোগে ছেড়ে দেয়া হয়।*
*অন্যদিকে, ভিডিওটির দ্বিতীয় অংশটি হলো-একটি সুপার মার্কেটে মধ্য বয়সী নারী কলা খোসা ছড়াচ্ছিলেন। যদিও সিসিটিভি ফুটেজ অস্পষ্ট। উভয় নারীকে একই বলে দাবি করা প্রতিবেদনগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।*
*কিছু ব্যবহারকারীরা বলছেন, যে উভয় নারীই আলাদা পোশাক পরেছিলেন। ভিডিওগুলো ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বর্ণবাদী টুইট এবং ভিডিওগুলো তাকে “চাইনিজ” বলে ডাকা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ব্যাপকভাবে বিভক্ত হতে শুরু করে।*

*যে ভি’ডিও ক্লি’পটিতে নারীকে শপিং ব্যাগ ধরে থাকতে দেখা যায়, সেখানে পুলিশকে বলতে শোনা গেছে আপনার হাত দিন। সেই সময় ওই নারী পুলিশকে হাত ধরতে দিতে রাজি হচ্ছিলেন না। পুলিশকে বলতে শোনা গেছে, আপনি গ্রেফতারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ করছেন, আপনি কি তা বুঝতে পারছেন? উত্তরে ওই নারী চিৎকার দিয়ে বলেন, “আমি কোনও ভুল করিনি”।*
*নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশের একজন মুখপাত্র ডে’ইলি মেই’লকে বলেন, সুপার মার্কেট ছাড়ার জন্য পুলিশের অনুরোধ না রাখায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।*
*তিনি আরও বলেন, সুপার মার্কেটের পক্ষ থেকে অভিযোগ করায় তাকে গ্র্রেফতার করে তাকে স্থানীয় গর্ডন থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। যদিও তার বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন ওই নারী। পরে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।*
*তবে একজন প্রত্যক্ষদর্শী ডেইলি মেইলকে বলেন, দুটি ঘটনাই একে অপরের সঙ্গে সংযুক্ত ছিল না।*