প্রচ্ছদ রাজনীতি *খালেদার মুক্তি চান না বলেই প’দত্যাগ করছেন ফখরুল?*

*খালেদার মুক্তি চান না বলেই প’দত্যাগ করছেন ফখরুল?*

79

*বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য প্যারোল আবেদন করেছেন তার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার। কিন্তু সেই সম্পর্কে বিএনপির শীর্ষ নেতারা কিছুই জানেন না। আজ বিএনপির শীর্ষ নেতারা এ ব্যাপারে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।*
*শেষপর্যন্ত যদি বেগম খালেদা জিয়া প্যারোল আবেদন করেন তালে বিএনপির শীর্ষ নেতারা একযোগে পদত্যাগ করতে পারেন বলে জানা গেছে। আজ বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে প্যারোলের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘প্যারোলের ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না।’ প্যারোলের কথা জেনে তিনি বেগম খালেদা জিয়ার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। কিন্তু বেগম জিয়ার ভাই শামীম এস্কান্দার তাকে এ ব্যাপারে কিছু জানাতে অস্বীকৃতি জানান।*

*উল্লেখ্য যে, গত কিছুদিন ধরে বেগম খালেদা জিয়ার পরিবারের সঙ্গে প্যারোল নিয়ে বিএনপি নেতাদের দূরত্ব তৈরী হয়েছে। দুইপক্ষই ভিন্ন অবস্থানে ছিল।*
*তবে একাধিক নেতা বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া যদি শেষ পর্যন্ত প্যারোল আবেদন করেন তাহলে মহাসচিব পদ ছেড়ে দেবেন মির্জা ফখরুল ইসলাম। এমনকি দলের অনেক সিনিয়র নেতাও পদত্যাগ করতে পারেন।*

*যেভাবে প্যারোলের আবেদন করতে হবে খালেদাকে*
*বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে তার ভাই শামীম এস্কান্দার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষের কাছে তার বিদেশে চিকিৎসার জন্য আবেদন করেছেন। বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ বলছে যে, এই আবেদন বিবেচনা করার এখতিয়ার তাদের নেই। কারণ বেগম জিয়া কারাবন্দি। তাকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি দেওয়া হবে কি হবে না, সেটি সরকারের বিষয়।*

*জেল কর্তৃপক্ষের একজন প্রতিনিধি এই আবেদনের ব্যাপারে বলেছেন যে, বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য যে আবেদন করা হয়েছে সেটি সঠিক নিয়মে করা হয়নি।*
*প্রথমত; এই আবেদনে বেগম জিয়াকেই স্বাক্ষর করতে হবে। তার পক্ষে অন্য কেউ এই আবেদন করতে পারবে না।*
*দ্বিতীয়ত; এই আবেদনে তাকে সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করতে হবে যে, তিনি কেন প্যারোল নেবেন এবং কোথায় যাবেন।*

*তৃতীয়ত; বেগম জিয়াকে আবেদনে এটা উল্লেখ করতে হবে যে, তিনি কতদিন তার চিকিৎসা করাবেন।
চতুর্থত; তাকে স্বরাষ্ট্র সচিব বরাবরে এই আবেদন করতে হবে। স্বরাষ্ট্র সচিব এই আবেদন পাওয়ার পর তিনি পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবেন।*
*বেগম খালেদা জিয়ার পরিবার থেকে বলছে যে, প্যারোলের জন্য তার ভাই শামীম এস্কান্দার বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছে। এই আবেদনের প্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে বেগম জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। এই বোর্ডই সরকারের কাছে পেশ করবে যে, বেগম জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে নেওয়া প্রয়োজন কিনা। যদি তারা বিদেশে নেওয়া প্রয়োজন মনে করে তাহলে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষই সে ব্যাপারে সরকারকে অবহিত করতে পারে। তবে জেল কর্তৃপক্ষ বলছে, এই পদ্ধতি জেল কোর্ড এবং প্রচলিত আইন, বিধি-বিধানের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।*