প্রচ্ছদ জীবন-যাপন *কনের মাকে নিয়ে বরের বাবা পালালো, ভেঙে গেল বিয়ে*

*কনের মাকে নিয়ে বরের বাবা পালালো, ভেঙে গেল বিয়ে*

107
*কনের মাকে নিয়ে বরের বাবা পালালো, ভেঙে গেল বিয়ে*

*প্রেম যে বয়স মানে না সেটা আরও একবার দেখা গেল। ছেলে-মেয়েকে বিয়ে দিতে গিয়ে উল্টো তারাই প্রেমের টানে উধাও হয়ে গেলেন। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের গুজরাটের সুরাটে। আগে থেকে নাকি তাদের মধ্যে প্রেম ছিল। কিন্তু সেটা সফলতার মুখ দেখেনি। সেই সম্পর্ক সমাপ্তির পরে দু’জনেই দিব্যি বিয়ে করে সংসার করছিলেন। ইতোমধ্যে তাদের সন্তানরাও বিয়ের বয়সী হয়েছে। আর সেই সন্তানের বিয়েকে কেন্দ্র করে আবারও তাদের মধ্যে যোগাযোগের সূত্রপাত। ধীরে ধীরে জমে উঠে তাদের পুরানো প্রেম। কিন্তু এখানেই সীমাবদ্ধ থাকেনি। ছেলে-মেয়ের বিয়ের এক মাস আগেই কনের বাবাকে নিয়ে পালিয়ে গেলেন বরের বাবা।*

*ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর, গুজরাটের সুরাটে বিয়ে ঠিক হয়েছিল তরুণ-তরুণীর। বিয়ের কথা ছিল ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে। সাজো সাজো রব দুই বাড়িতেই। কিন্তু বিয়ের ঠিক একমাস আগেই নিখোঁজ হয়ে গেলের বরের বাবা আর কনের মা। এভাবে ১০ দিনের বেশি কেটে যাওয়ার পর সামনে এল আসল ঘটনা। হবু বেয়াইনকে নিয়ে চম্পট দিয়েছেন বরের বাবা।*

*পরিবার সূত্র জানা গেছে, গত এক বছর ধরেই বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল দুই বাড়িতে। কিন্তু বহু বেয়াই- বেয়াইন মিলে যে এমন কাণ্ড ঘটাবেন তা কেউ বুঝতেই পারেনি। পরে খোঁজ নিয়ে পরিবারের মানুষ জানতে পারেন, ছোটবেলা থেকে একে অপরকে চিনতেন বরের বাবা আর কনের মা। কিশোর বয়সে একে অপরের প্রেমেও পড়েছিলেন। বিয়ে করতে চেয়েছিলেন দু’জনে। বেশ কয়েকবার তখন পালানোর চেষ্টা করেও সফল হননি। শেষমেশ তাদের বিয়ে হয়ে যায় আলাদা জায়গায়। অসমাপ্ত থেকে যায় প্রেম কাহিনী। তবে বহু বছর পরে ছেলে-মেয়ের বিয়ের সূত্র ধরেই ফের দেখা হয় তাদের। এবার আর অবশ্য সুযোগ ছাড়েননি তারা।*

*৪৮ বছরের বরের বাবা রাকেশ কাতারগ্রামে ব্যবসা করতেন। আর হবু কনের ৪৬ বছরের মা স্বাতীর শ্বশুরবাড়ি ছিল নাভসারি গ্রামে। তবে প্রেম কবে বয়স মেনেছে। তাই ছেলে-মেয়ের বিয়ের ঠিক এক মাস আগেই পালানেন দু’জনে। পালানোর কথা কয়েকজন বন্ধুকেও নাকি জানিয়েছেন তারা। এ নিয়ে অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছে পরিবার দুটি। এদিকে বাব-মা পালিয়ে যাওয়ায় বিয়ে ভেঙে গেছে হবু বর-কনের।*