প্রচ্ছদ বিশ্ব *সৌদি ৫০০ মি’লিয়ন ড’লার দিল মা’র্কিন সে’নাদের খরচ বাবদ*

*সৌদি ৫০০ মি’লিয়ন ড’লার দিল মা’র্কিন সে’নাদের খরচ বাবদ*

38
*সৌদি ৫০০ মিলিয়ন ডলার দিল মার্কিন সেনাদের খরচ বাবদ*

*সৌদি আরবে অবস্থানরত মা’র্কিন সে’নাদের খরচ বাবদ গত মাসে যুক্ত’রাষ্ট্রকে ৫০০ মি’লিয়ন ড’লার দিল দেশটি। খবর মি’ডল ইস্ট’ মি’রর’র। প্রতিরক্ষা ব্যয় নিয়ে দু’দেশের মধ্যে আলোচনা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানিয়েছেন এক মা’র্কিন কর্মকর্তা।*
*যুক্তরা’ষ্ট্রের প্রতিরক্ষা সদরদফতর পে’ন্টাগনের মুখপাত্র কমা’ন্ডার রে’বেকা রেবা’রিচ মিড’লইস্ট আ’ই-কে এ কথা জানান।*
*তিনি বলেন, এই অর্থ প্রদান আঞ্চলিক নিরাপত্তা সহযোগিতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরবের মধ্যে ব্যয় ভাগাভাগির অংশ হিসেবে ‘প্রথম কোনো অবদান’।*

*রে’বারিচ শুক্রবার বলেন, ‘গত আট মাস ধরে মধ্যপ্রাচ্যে ব্যাপক নিরাপত্তা হু’মকির জবাবে যুক্ত’রাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বাড়াতে সেখানে মা’র্কিন সে’না মোতায়েন করেছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং সৌদির স্পর্শকাতর সা’মরিক ও বেসামরিক স্থাপনার আকাশ ও ক্ষে’পণাস্ত্র প্রতিরক্ষা বাড়ানো হয়েছে।’*
*তিনি বলেন, ‘এই কর্মযজ্ঞের ব্যয় মেটাতে সৌদি সরকার আর্থিক সহযোগিতার বিষয়ে একমত হয়েছে এবং প্রথমবারের মতো আর্থিক অনুদান দিয়েছে।’*

*ফ’ক্স নি’উজ-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রেসি’ডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, সৌদি আরব ইতোমধ্যে ব্যাংকে ১০০ কোটি ড’লার জমা দিয়েছে।*
*যুক্তরাষ্ট্রের সা’মরিক ব্যয় কমাতে সৌদি আরবের আর্থিক অনুদান প্রদানের ঘট’না এটিই প্রথম নয়। নব্বইয়ের দশকে ইরাকের বি’রুদ্ধে ছয় মাসের উপসাগরীয় যুদ্ধের খরচ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রকে ৩৬০০ কোটি ড’লার দিয়েছিল সৌদি আরব ও কুয়েতসহ উপসাগরীয় দেশগুলো।*

*প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য, সেই সময় ইরান সীমান্তে উড়ছিল ৬টি মার্কিন জ’ঙ্গি বি’মান*
*রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সে’র্গেই ল্যা’ভরভ বলেছেন, ইরানের রাজধানী তেহরানের আকাশে ইউক্রেনের যাত্রীবাহী বি’মান বিধ্ব’স্ত হওয়ার সময় ইরান সীমান্তে অন্তত ৬টি মা’র্কিন জ’ঙ্গিবিমান আকাশে উড়ছিল।*
*শুক্রবার মস্কোয় তার বার্ষিক সংবাদ সম্মেলনে ল্যাভরভ এ কথা বলেন।*

*তিনি বলেন, তার কাছে এমন গোয়ে’ন্দা ত’থ্য রয়েছে যে, ওই সময় অন্তত ৬টি মা’র্কিন এ’ফ-৩৫ জঙ্গি’বিমান ইরান সীমান্তের আকাশে উড়ছিল।*
*গত ৮ জানুয়ারি ভুলবশত ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থেকে নিক্ষিপ্ত ক্ষে’পণাস্ত্রের আ’ঘাতে ইউক্রেনের একটি যাত্রীবাহী বি’মান ভূপা’তিত হয়। এ ঘটনায় তেহরান থেকে কি’য়েভ হয়ে টরেন্টোগামী বো’য়িং ৭৩৭ বিমা’নটির ১৭৬ আরোহীর সবাই প্রাণ হারান। হতভাগ্য এসব মানুষের মধ্যে ১৪৭ জনই ইরানি নাগরিক। বাকি ২৯ জন ইউক্রেন, কানাডা, সুইডেন, আফগানিস্তান ও ব্রিটেনের নাগরিক ছিলেন।*

*ইরানের সশ’স্ত্র বা’হিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দেশের আশপাশে মার্কি’ন সন্ত্রা’সী বাহি’নীর জ’ঙ্গিবিমানের আনাগোনা বেড়ে যাওয়ার কারণে ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছিল। এ অবস্থায় ইউক্রেনের যাত্রীবাহী বিমান ইরানের একটি স্পর্শকাতর স্থাপনার আকাশে চলে আসায় ভুল করে সেটি লক্ষ্য করে ক্ষে’পণাস্ত্র নি’ক্ষেপ করা হয়।*
*রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সে’র্গেই ল্যাভ’রভ তার বক্তব্যে প্রকারান্তরে ইরানের সশ’স্ত্র বা’হিনীর বিবৃতির সত্যতা নিশ্চিত করলেন। সূত্র: প্রে’সটিভি*