প্রচ্ছদ বিশ্ব *মৃ’ত্যুদণ্ড বা’তিল হলো পাকিস্তানের সা’বেক প্রেসি’ডেন্ট মোশাররফের*

*মৃ’ত্যুদণ্ড বা’তিল হলো পাকিস্তানের সা’বেক প্রেসি’ডেন্ট মোশাররফের*

95
*মৃ'ত্যুদণ্ড বাতিল হলো পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোশাররফের*

*রা’ষ্ট্রদ্রোহের অভি’যোগে বিশেষ আদালতে পাকিস্তানের সা’বেক প্রেসি’ডেন্ট জেনারেল (অব.) পারভেজ মোশাররফকে দেওয়া মৃ’ত্যুদণ্ডের রায় লাহোর হা’ইকোর্টে বা’তিল হয়ে গেছে।*
*সোমবার পারভেজ মোশাররফের এক আবে’দনের শুনানি শেষে তিন সদস্যের বি’চারকের একটি প্যা’নেল জানায়, যেভাবে ওই মাম’লা করা হয়েছে, তাও আইনসম্মত হয়নি।*
*রায়ে লাহোর হাইকোর্ট বলেছে, পারভেজ মোশাররফের বিচারের জন্য যে প্রক্রিয়ায় ওই বিশেষ আদা’লত গঠন করা হয়েছিল, তা সংবিধানসম্মত হয়নি।*

*রায়ের পর এক প্রসিকি’উটর বলেন, মৃত্য’দণ্ড বা’তিলের নির্দে’শের অর্থ জেনা’রেল মোশাররফ এখন ‘একজন স্বাধীন মানুষ’।*
*সরকারি প্রসি’কিউটর ইশতিয়াক এ. খান বলেন, অভিযোগ দায়ের, আদালতের নিয়ম-নীতি, প্রসিকি’উশন টি’ম নির্বাচন, এসবই অবৈ’ধ ঘোষণা করেছেন আদালত। এর মানে সম্পূর্ণ রা’য়ই বা’তিল হয়ে গেছে।*
*গত ১৭ ডিসেম্বর পাকিস্তানের একটি বিশেষ আদা’লত দেশটির পারভেজ মোশাররফকে রাষ্ট্রদ্রো’হিতার মাম’লায় মৃত্যু’দণ্ডাদেশ দেন।*

*২০০৭ সালের ৩ নভেম্বর জরুরি অবস্থা জারির অভি’যোগে দেশটির আদাল’তে মোশাররফের বি’রুদ্ধে রাষ্ট্র’দ্রোহী মা’মলা হয়। ২০১৩ সালের ডিসেম্বর থেকে এই মাম’লার রা’য় আদা’লতে ঝুলে ছিল। সংবিধান লঙ্ঘ’ন করে জরুরি অবস্থা জা’রির অভি’যোগে ওই বছর মোশাররফকে রাষ্ট্রদ্রো’হীতার মাম’লায় দোষী সাব্যস্ত করেন আদাল’ত।*

*২০০১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের প্রেসি’ডেন্ট ছিলেন পারভেজ মোশাররফ। ৭৪ বছর বয়সী মোশাররফ অসু’স্থ হয়ে পড়ায় ২০১৬ সালের মার্চে চিকিৎসার জন্য দুবাই যান সাবেক এ সে’নাপ্রধান। এখনো তিনি দুবাই রয়েছেন।*
*রাষ্ট্র’দ্রোহ, জরুরি অবস্থা জা’রি, বেআইনি উপায়ে বিচারপতি বরখাস্ত, বেনজির ভুট্টো হ’ত্যা এবং লাল মস’জিদ ত’ল্লাশি অভি’যান-সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি মা’মলা রয়েছে সা’বেক এই পাক সে’নাপ্রধানের বিরু’দ্ধে।*