প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *নুরের ফেস’বুক পে’ইজ পরিচালিত হয় তারেকের অ’ফিস থেকে?*

*নুরের ফেস’বুক পে’ইজ পরিচালিত হয় তারেকের অ’ফিস থেকে?*

3160
*নুরের ফেসবুক পেইজ পরিচালিত হয় তারেকের অফিস থেকে?*

*সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফে’সবুকে নুরের যে পে’জটি রয়েছে, তাতে মোট ১২ অ্যাড’মিনের দুইজন অবস্থান করছেন যুক্ত’রাজ্যের ল’ন্ডনে। এই দুই অ্যা’ডমিন মূলত লন্ড’নে বিএনপি-জামায়াতের সাই’বার টি’মের সদস্য।*
*নুরের ফে’সবুক পে’জের ট্রান্স’পারেন্সি ফি’চারে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে ১০ জনের প্রাই’মারি কা’ন্ট্রি লোকে’শন দেয়া বাংলাদেশ, আর বাকি দুইজনের লো’কেশন যুক্ত’রাজ্য।*

*এ ব্যাপারে ফেস’বুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, ওই পে’জের যুক্তরা’জ্যে যে অ্যাড’মিন রয়েছে, তার অবস্থান পূর্ব লন্ডনের ১১২-১১৬ হোয়াট’চ্যাপেল রো’ডে। অর্থাৎ, লন্ড’নের ১১২-১১৬ হোয়া’টচ্যাপেল রো’ডের বা’ড়িটি মূলত বিএনপির ল’ন্ডন অ’ফিস হিসেবে ব্যবহৃত হয়।*
*২০১৮ সালের ১১ এপ্রিল ওই অ’ফিসটি উদ্বোধন করেন বিএনপির সা’জাপ্রাপ্ত প’লাতক নে’তা তারেক রহমান। ওই অফিস থেকেই বিএনপির সাই’বার ‘টিম দেশ ও সরকার’বিরোধী নানা প্রো’পাগান্ডা চালিয়ে থাকে।*

*নুরের ওপর হাম’লাকারী কে এই নারী?*
*ঢাকা বিশ্ববি’দ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সং’সদের (ডাক’সু) সহ-সভাপতি (ভি’পি) নুরুল হক নুর ও তার সহযোগীদের ওপর গত রোববার (২২ ডিসেম্বর) হা’মলা চালায় মুক্তি’যুদ্ধ ম’ঞ্চের একাংশের নে’তাকর্মীরা। এ ঘটনায় ভি’পি নুরসহ অন্তত ৩২ জন আ’হত হয়েছেন। হাম’লার ভি’ডিওতে এক উত্তেজিত তরুণীকে লা’ঠি হাতে দেখা যায়। তিনি হলেন মুক্তি’যুদ্ধ মঞ্চ’ কেন্দ্রীয় কমিটির ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক ও লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক ফাতেমাতুজ জুহরা রিপা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইতিমধ্যেই তার বেশ কয়েকটি ছবি ও ভি’ডিও ভাই’রাল হয়েছে।*

*রিপা লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ পৌরসভার বাঁশঘর এলাকার বাসিন্দা ও রামগঞ্জ মডেল কলেজের অনার্সের ছাত্রী। তিনি স্থানীয় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। সম্প্রতি ঢাকায় এসে মুক্তি’যুদ্ধ ম’ঞ্চের কেন্দ্রীয় ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পান তিনি। চলতি বছরের ৬ এপ্রিল রামগঞ্জ উপজেলা শিক্ষক সমিতির একটি অনুষ্ঠানে লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন খান প্রধান অতিথি ছিলেন। এ সময় এমপির সঙ্গে সভা ম’ঞ্চে ওঠা ছাত্রলীগ নে’তাকর্মীদের নেমে যেতে বলা হয়। ওই সময় সবাই নামলেও নামেননি রিপা। তখন রিপাকেও নেমে যেতে বলা হয়। পরে ফেসবুক লাইভ এসে কান্নাকাটি করে ভাইরাল হন রিপা। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ হয়। সেই ঘটনার পর নুর ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা চালিয়ে আবারও ভাইরাল হলেন রিপা।*

*গত কয়েকদিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লা’ঠি হাতে যে নারীর ছবি ও ভি’ডিও ছড়িয়ে পড়েছে সেগুলো তার নিজের বলে স্বীকার করে নিয়েছেন রিপা। তিনি বলেছেন, নিজের নিরাপত্তার তাগিদে লাঠি হাতে তুলে নিয়েছি। শি’বির-ছাত্রদল ঠেকাতে, তবে কারও ওপর হামলা করতে নয়। ভি’পি নুরের সঙ্গে থাকা বহিরাগত ছাত্রদল-শি’বিরের নে’তাকর্মীরা আমাদেরকে গা’লমন্দ করেছেন। এজন্য লাঠি হাতে তাদের ধাওয়া করেছিলাম।*

*তার ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফে’সবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর নিজের ফেসবু’ক আ’ইডি ডিঅ্যা’কটিভ করে রেখেছেন রিপা। তবে তার নামে (Fatema Ripa) একটি ফে’সবুক পে’ইজ ও গ্রুপ খোলা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুর ২টার দিকে লাঠি হাতে ছবিগুলো দিয়ে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের হুঁ’শিয়ারি দেওয়া হয়। ওই পোস্টগুলোতে ফে’সবুক ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করছেন। এতে অনেকেই রি’পোর্ট দিয়ে আ’ইডি, পেই’জ ও গ্রু’পগুলো ব’ন্ধের অনুরোধ করেছেন।*

*প্রসঙ্গত যে, ভি’পি নুরুল হক নুর ও তার সহযোগীদের ওপর গত রোববার (২২ ডিসেম্বর) হাম’লা চালায় মুক্তি’যুদ্ধ ম’ঞ্চের একাংশের নে’তাকর্মীরা। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার শাহবাগ থানায় একটি মাম’লা হয়েছে। মাম’লার অভি’যোগে বলা হয়েছে, হত্যার চেষ্টায় দেশীয় অস্ত্রে নুরদের ওপর হাম’লা চালায় মু’ক্তিযুদ্ধ ম’ঞ্চের নে’তাকর্মীরা। মামলায় আটজনের নাম উল্লেখসহ ৩০ থেকে ৩৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়। এজা’হারভুক্ত আ’সামিরা হলেন-*

*মুক্তি’যুদ্ধ ম’ঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, ঢা’বি শাখার সভাপতি এ এস এম স’নেট, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য, এ এফ রহমান হল শাখা মুক্তি’যুদ্ধ ম’ঞ্চের সাধারণ সম্পাদক ইমরান সরকার, কবি জসিম উদ্দিন হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াদ আল রিয়াদ (হ’ল থেকে অস্থায়ী ব’হিষ্কৃত), জিয়া হল শাখা মুক্তি’যুদ্ধ ম’ঞ্চের সভাপতি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম মাহিম ও মাহবুব হাসান নিলয়। তবে আসামিদের মধ্যে যাদের নাম উল্লেখ করা হয়েছে সেখানে রিপার নাম নেই। কিন্তু মঙ্গলবার দুপুরে শাহবাগ থানায় ডা’কসুর ভি’পি নুরুল হক নুরুর দায়েরকৃত অভি’যোগপত্রে ৩২ নম্বরে রয়েছে রিপার নাম।*