প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট *ভারত আর্মির প্রতারণা: সাকিব এগিয়ে থাকলেও স্টোকসকে বিজয়ী ঘোষণা*

*ভারত আর্মির প্রতারণা: সাকিব এগিয়ে থাকলেও স্টোকসকে বিজয়ী ঘোষণা*

82
*ভারত আর্মির প্রতারণা: সাকিব এগিয়ে থাকলেও স্টোকসকে বিজয়ী ঘোষণা*

*ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের নিয়ে গড়া একটি সংগঠন ভারত আর্মি। সম্প্রতি টুইটারে সেরা অলরাউন্ডারদের নিয়ে করা একটি পোলে সাকিব আল হাসানকে যোগ করে বাংলাদেশি ভক্তদের থেকে ব্যাপক সাড়া পায় তারা। টুইটারের পোলটিতে সাকিব আল হাসান বিপুল ব্যবধানে অন্যন্য অলরাউন্ডারদের থেকে এগিয়ে থাকলেও শেষ পর্যন্ত বেন স্টোকসকে বিজয়ী ঘোষণা করে সমালোচনার মুখে পড়ে ভারত আর্মি।*

*সেরা অলরাউন্ডারের পোলে সাকিব ছাড়াও এই পুরষ্কারের জন্য এইবার মনোনয়ন দেওয়া হয় কেন উইলিয়ামসন, বেন স্টোকস ও স্টিভ স্মিথকে। শুরুর দিকে বেন স্টোকসই এগিয়ে ছিলেন ভোটে। তবে হঠাৎ করেই এই পোলের খবর বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। সকলকে বেশ অবাক করে দিয়েই এই পোলে সাকিব দ্রুত গতিতে এগোতে থাকেন ভোট সংখ্যায়। ভোট শেষ হওয়ার সময় প্রায় ১৪ হাজার ভোটের ৮২ ভাগ ভোট পেয়ে এতে নিরঙ্কুশ জয় লাভ করেন সাকিব আল হাসান।*

*হঠাৎ করেই ভোটের সময় শেষ হওয়ার একদিন পর ভারত আর্মি ঘোষণা দেয় তাদের এই পুরস্কারে ভোট ছাড়াও দেখা হবে খেলোয়াড়দের স্পোর্টসম্যান স্পিরিট, ধারাবাহিকতা ও দলের জন্য পারফরম্যান্স কতটুকু কাজে লেগেছিল সেটিও। এই ঘোষণা সবার জন্য অবাক করে দেওয়া ব্যাপারই ছিলো। অবশ্য ২০১৯ সালে সাকিব যথেষ্ট ধারাবাহিক ছিলেন স্টোকসের মতো, তার বিরুদ্ধে যেই জুয়াড়ির সাথে আলাপ গোপনের অভিযোগ সেটিও হয়েছিলো গত বছর ২০১৮ সালে। বলা যায় খেলোয়াড়ের নীতি নৈতিকতার দিক দিয়েও এই বছর সাকিব কোন ভুল করেননি। ভোটেও সাকিব ছিলেন স্টোকসের তুলনায় বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে। তাই ধারণা করা হচ্ছিলো এই পুরস্কার সাকিবই পাবেন। তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে বৃহস্পতিবার ভারত আর্মি ঘোষণা দেয় তাদের এই পুরস্কারের বিজয়ী ইংল্যান্ডের বেন স্টোকস।*

*বাংলাদেশের ভক্তদের মনে প্রশ্ন উঠতেই পারে ভোট শেষ হওয়ার পর কেনো এই ঘোষণা দেওয়া হলো যে শুধু ভোট নয় খেলোয়াড়দের আচরণ, নীতি নৈতিকতারও উপরে নির্ভর করবে এই পুরস্কার জয়? যদি সাকিব ক্রিকেটের স্পিরিটের বিপক্ষে এই বছর কিছু করেই থাকেন তাহলে কেনোই বা এই চারজনের ছোট তালিকায় সাকিবের নাম রাখা হলো? কেনই বা স্টোকসের জয়ের কথা ঘোষণা করার সময়ই এটি বড় করে মনে করিয়ে দেওয়া হলো পুরস্কার শুধু ভোটের উপর নির্ভর করেনা, পুরস্কার খেলোয়াড়দের ‘ক্রিকেটীয় স্পিরিট’ প্রদর্শনের উপরও নির্ভর করে।তাহলে শুধু বাংলাদেশী দর্শকদের বিপুল ভোট পাওয়ার জন্যই শুধু সাকিবকে রাখা হয়েছিলো এই ভোটে?*

*তাদের এই ভোটের খবর বেন স্টোকসের আইপিএল ক্লাব রাজস্থান রয়েলস ও পরবর্তীতে স্টোকস জয়ের পর ইংল্যান্ডের ভক্তদের সংগঠন বার্মি আর্মি তাদের টুইটার পেইজে শেয়ার করে জানায়।*
*তাই ভক্তদের মনে এমন প্রশ্ন ওঠা অস্বাভাবিক নয় যে স্টোকসকে জিতানোর জন্যই কি ভারত আর্মির শেষে এসে তাদের নিয়ম স্মরন করিয়ে দেওয়ার বৃথা চেষ্টা? তাদের টুইটার পেইজে বাংলাদেশি ভক্তদের অসন্তোষ দেখা গিয়েছে এই রকম প্রতারণা মূলক ভোটের জন্য।*