প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *আরও এক গৃহবধূকে গণধর্ষ’ণ সেই সুবর্ণচরেই*

*আরও এক গৃহবধূকে গণধর্ষ’ণ সেই সুবর্ণচরেই*

114
আরও এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ সেই সুবর্ণচরেই

*নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় আরেক গৃহবধূকে গণধ’র্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার দক্ষিণ চরমজিদ আশ্রয়ন কেন্দ্রে শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে স্থানীয় সংঘবদ্ধ যুবকরা ধর্ষ’ণ করে ২৮ বছর বয়সী ওই নারীকে। পরে তারা ওই নারীর বসতঘরে লুট’পাট চালায়। স্থানীয়রা অচেতন অবস্থায় নির্যা’তিতাকে উদ্ধার করেন। গতকাল শনিবার বিকালে তাকে ভর্তি করা হয় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে। রাতে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আলামত সংগ্রহ করেন চিকিৎসক।*

*হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই নারী জানান, দাদি শাশুড়ির মৃ’ত্যুর কারণে তার স্বামী বাড়ি ছিলেন না। ঘরে তিনি একা ছিলেন। রাত দেড়টার দিকে ৯ যুবক দরজা ভেঙে তার ঘরে ঢোকে। তাদের হাতে দেশীয় অস্ত্র ছিল। এ সময় তিনি চিৎকার দিলে অ’স্ত্র দেখিয়ে একজন মুখ চেপে ধরে। এর পর পাঁচ যুবক পালাক্রমে তাকে ধর্ষ’ণ করে এবং গলা ও কানের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়। এ সময় তাকে মারধরও করা হয়। তিনি ধ’র্ষণ ও হাম’লাকারী সবাইকে চেনেন। তারা এলাকার সন্ত্রা’সী কর্মকাণ্ডে জড়িত।*

*নির্যাতিতা আরও জানান, আগামীকাল (রবিবার) তার দেবরের জামিন চাওয়ার জন্য ঘরে ২০ হাজার টাকা রাখা ছিল। ধর্ষ’করা টাকাগুলো নিয়ে গেছে। ধর্ষ’কদের তা’ণ্ডবে আশপাশের লোকজন এলেও ভয়ে কেউ তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসেনি। একপর্যায়ে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।*

*প্রতিবেশী এক নারী জানান, যুবকরা চলে যাওয়ার পর নি’র্যাতিতাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে তারা। গতকাল বিকালে পুলিশ এসে তাকে প্রথমে থানায় নিয়ে যায়। থানা পুলিশের পরামর্শে বিকালে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি আরও জানান, পুরো আশ্রয়ন কেন্দ্রের আতঙ্ক স্থানীয় চেয়ারম্যানের বাহিনী হিসেবে খ্যাত এই চক্র। তারা আশ্রয়ণের মানুষকে জিম্মি করে সন্ত্রা’সী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। এর আগে তারা ওই আশ্রয়ন কেন্দ্রের একাধিক নারীকে ধ’র্ষণ করেছে।*

*চরজব্বার থানার ওসি সাহিদ উদ্দিন ভাঙ’চুরের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নির্যা’তিতাকে থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।*