প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *কক্সবা’জারের পেকু’য়ায় ধ’র্ষণের পর ছাত্রীকে চো’খ তু’লে হ’ত্যা!*

*কক্সবা’জারের পেকু’য়ায় ধ’র্ষণের পর ছাত্রীকে চো’খ তু’লে হ’ত্যা!*

63
*কক্সবাজারের পেকুয়ায় ধর্ষণের পর ছাত্রীকে চোখ তুলে হত্যা!*

*কক্সবাজারের পেকুয়ায় নিখোঁ’জের এক দিন পর মাদরাসাছাত্রী আয়েশা বেগমের (১৬) বস্তা’বন্দি লা’শ উ’দ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে মগনামা ইউনিয়নের লঞ্চঘাট সংলগ্ন বিসমিল্লাহ সড়কের পাশ থেকে তার লা’শ উদ্ধা’র করা হয়। এ খবর পেয়ে নিহ’তের বাবা স্ট্রো’ক করে হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়েছেন। পুলিশের সুর’তহাল প্রতি’বেদনে বলা হয়েছে, ওই ছাত্রীর দুই চোখসহ বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কে’টে নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ধর্ষ’ণের আলা’মতও মিলেছে।*

*নি’হত আয়েশা বেগম মগনামা ইউনিয়নের লঞ্চঘাট এলাকার মো. জামাল হোসেনের মেয়ে। সে স্থানীয় মগনামা শাহ রশিদিয়া আলিম মা’দরাসার নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।*
*পারিবারিক সূ’ত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে আয়েশা মাদ’রাসার উদ্দেশে বাড়ি থেকে রওনা হয়। মাদ’রাসা ছুটি হওয়ার পরও সে বাড়ি ফেরেনি। এরপর পরিবারের সদস্যরা তাকে খোঁ’জাখুঁজি করেও হ’দিস পায়নি।*
*মাদ’রাসার অধ্যক্ষ মৌলানা মোহাম্মদ নূর জানান, আয়েশা নিয়মিতভাবে মাদ’রাসায় আসত। তবে বৃহস্পতিবার সে অনুপস্থিত ছিল।*

*কন্যাশোকে মা নছুমা খাতুন গতকাল আহাজারি করছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমার মেয়েকে ব’খাটেরা অপহ’রণ করে শারী’রিক নি’র্যাতন চালিয়েছে। এরপর তাকে বীভৎ’সভাবে হ’ত্যা করা হয়েছে। আমার মেয়ের ওপর এমন বর্ব’রতা যারা চালিয়েছে, তাদের কঠিন শা’স্তি চাই।’*
*পেকুয়া থানার পরি’দর্শক (তদ’ন্ত) মিজানুর রহমান বলেন, ‘ভুক্ত’ভোগীকে কোনো বখা’টে উত্ত্য’ক্ত করে আসছিল কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ধর্ষ’ণের আ’লামত পাওয়া গেছে। ময়না’তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর বিষয়টি নিশ্চিত হবে। এ ঘট’নায় সন্দে’হভাজনদের ধরতে পুলিশের অ’ভিযান চলছে।’*
*পেকুয়া থানার ওসি মো. কামরুল আজম বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে, ওই শিক্ষার্থীকে হত্যা’র পর বস্তা’বন্দি করে লা’শ ফেলে যায় দুর্বৃ’ত্তরা। এ ঘট’নায় মা’মলা দায়ে’রের প্রস্তুতি চলছে।’*