প্রচ্ছদ রাজনীতি *তারেকের নি’র্দেশ পা’লন করে দলকে মুসলিম লীগে পরি’ণত করছে ফখরুল!*

*তারেকের নি’র্দেশ পা’লন করে দলকে মুসলিম লীগে পরি’ণত করছে ফখরুল!*

268
*তারেকের নির্দেশ পালন করে দলকে মুসলিম লীগে পরিণত করছে ফখরুল!*

*মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চি’ঠি দিয়েছেন গতকাল ১৭ নভেম্বর। এই চি’ঠিতে ভারতের সঙ্গে চু’ক্তি জনস’ম্মুখে প্রকা’শের পাশাপাশি সংসদ ও রাষ্ট্রপতির কাছে প্রকা’শের দা’বি জানিয়েছেন। এই চি’ঠিটি গণমাধ্যমে প্রকাশের পর বিএনপিতে তোল’পাড় শুরু হয়েছে। বিএনপি বলছে যে, হঠাৎ করে ভারতের সঙ্গে চু’ক্তি নিয়ে এ চি’ঠি দেওয়া কেনো তা বিএনপি নে’তাদের বোধ্য’গম্য নয়। এই চি’ঠির বিষয় নিয়ে দলের স্থা’য়ী ক’মিটির বৈঠকে কোনো আলোচ’নাই হয়নি। বরং প্রধানমন্ত্রীর কাছে যদি চি’ঠি দিতে হয় তাহলে বেগম খালেদা জিয়ার মু’ক্তি, দ্রব্য মূ’ল্যের উর্ধ্ব’গতি, রে’ল দুর্ঘট’নাসহ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে চি’ঠি দেওয়া প্রয়োজন।*

*হঠাৎ করে কোনো ভারতের সঙ্গে চু’ক্তি জনসম্মুখে প্রকা’শ করার বিষয়ে চি’ঠি দেওয়া হলো তা নিয়ে বিএনপির স্থায়ী ক’মিটির সদ’স্যরা বিস্ম’য় প্র’কাশ করেছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন স’দস্য বলেছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংস’দ সদ’স্য নন। কাজেই এই বিষয়টি যদি সং’সদে উপস্থা’পন করা হয়, তাহলে গত ৭ নভেম্বর পর্যন্ত সংস’দ অধি’বেশন ছিল। তাহলে কেনো সেই সময় বিএনপির এম’পিরা সংস’দে বিষয়টি উপস্থা’পন করলেন না। সংস’দীয় বিষয় নিয়ে কোনো প্রধানমন্ত্রীর কাছে চি’ঠি দিতে হবে? এই চি’ঠি যদি দেওয়া হয় তাহলে সং’সদ নে’তাকে চি’ঠি দিতে হবে প্রধানমন্ত্রীর কা’র্যালয়ে নয়।*

*বিএনপির আরেকজন নে’তা বলেছেন, আমাদের স্থা’য়ী কমি’টিতে সুনিদিষ্ট সি’দ্ধান্ত আছে সরকারের সঙ্গে নতুন করে কোনো বিষয় নিয়ে আ’লাপ আলো’চনা হবে না। একমাত্র খালেদা জিয়ার জা’মিনের বি’ষয় নিয়েই সরকারের সঙ্গে আ’লাপ আ’লোচনা হতে পারে। সেখানে ভারতের সঙ্গে চু’ক্তি নিয়ে কোনো আ’লাপ আলোচ’নার উদ্যো’গ নেওয়া হলো সেটা একটা বি’বেচ্য বিষয়। সংশ্লি’ষ্ট সূত্র’গুলো বলছে, বিএনপির স্থা’য়ী কমি’টির একাধিক সদ’স্য এটা নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে তী’ব্র ভর্ৎ’সনা করে তার সমা’লোচনা করেছেন।*

*সূ’ত্রগুলো বলছে, ড. কামাল হোসেন এবং তারেক জিয়ার পরামর্শে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই চি’ঠি দিতে বা’ধ্য হয়েছেন। গো’য়েন্দা সূ’ত্র বলছে, তারেক জিয়া দীর্ঘদিন থেকেই পাকি’স্তানি গো’য়েন্দা সং’স্থা আই’এসআইয়ের মদ’দে চলেন। লন্ডনে তাকে নিয়মিত মা’সোহারা দেন আই’এসআই। তাদের নি’র্দেশেই তারেক জিয়া মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে এই চি’ঠি দেওয়ার কথা বলেছেন। অন্যদিকে বিএনপির আরেকজন নে’তা বলেছেন, এই সময় ভারত বিরো’ধী অবস্থা’ন দলের জন্য আরো দুর্ভো’গ বয়ে নিয়ে আসবে।*

*বিএনপির সং’শ্লিষ্ট সূত্র’গুলো বলছে যে, তারেক জিয়ার নির্দে’শেই এই চি’ঠিটি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এ ধরনের চি’ঠির পরি’ণতি কি হবে তা বিবে’চনা না করে এ ধ’রণের চি’ঠি দেওয়া হাস্য’কর এবং অরা’জনৈতিকসূলভ। কারণ বিএনপি যদি সত্যি সত্যি এই সরকারের বি’রুদ্ধে আন্দো’লন করতে চায় তাহলে ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচ’ন নিয়ে প্রশ্ন তুলতে হবে। এই সরকারের বৈ’ধতা নিয়েও প্রশ্ন তু’লতে হবে। সেটা না করে এই ধরনের চি’ঠির মাধ্যমে সরকা’রকে বৈধ’তা দেওয়া হচ্ছে। সং’শ্লিষ্ট সূত্র’গুলো বলছে যে, বিএনপিতে এই চি’ঠি নিয়ে এখন নতুন টা’নাপোড়েন সৃ’ষ্টি হয়েছে।*

*বিশেষ করে একের পর এক গুরুত্বপূর্ণ সি’দ্ধান্তগুলো স্থা’য়ী কমি’টিকে আ’ড়াল করে নেওয়া হচ্ছে যেটা বিএনপির গঠন’তন্ত্রের প’রিপন্থি। বিএনপির নে’তারা মনে করছেন যে, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে যেভাবে তারেক জিয়া চা’লাচ্ছে এর ফলে বিএনপির পরি’ণতি আরেকটি মুসলিম লীগের মত হবে বলেই অধি’কাংশ নে’তা মনে করে। এরকম অরা’জনৈতিক ভাব’না বিএনপির দেউ’লিয়া রাজনীতির এক বহিঃপ্রকা’শ বলেই মনে করছেন বিএনপির এ’কাধিক নে’তা।*
*বিএনপির একজন নে’তা বলেছেন, এই বিষয়টি নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে কথা বলা হবে এবং তার কাছ থেকে এ বিষয়ে কৈফি’য়ত চাওয়া হবে।*