প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য *জেনে নিন, যেসব সম’স্যায় ভু’গতে হবে পিয়াজ বেশি খেলে*

*জেনে নিন, যেসব সম’স্যায় ভু’গতে হবে পিয়াজ বেশি খেলে*

107
*জেনে নিন, যেসব সমস্যায় ভুগতে হবে পিয়াজ বেশি খেলে*

*প্রাকৃতিক প্রতি’ষেধক হিসেবে পিয়াজের জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। এটিকে মিরা’কল ফু’ড বা বিস্ময়’কর খাবারও বলা হয়ে থাকে। কেননা, ডায়া’বেটিস, হাঁপা’নি ও উচ্চ রক্ত’চাপ প্রতি’রোধে পিয়াজ অত্যন্ত সহায়ক একটি পণ্য।
পিয়াজের এসব উপকারিতা সত্ত্বেও এ খাবার বেশি পরিমা’ণে খেলে কিছু সমস্যা’ হতে পারে। নিম্নে পিয়াজ বেশি খাওয়ার কিছু কু’ফল আলো’চনা করা হল:*

*অ্যা’লার্জি: পিয়াজের প্রতি অ্যা’লার্জি থাকলে আপনার ত্ব’কে এ খাবারের ফলে চুলকা’নিযুক্ত লাল র‍্যাশ ওঠতে পারে এবং সেইসঙ্গে চোখে লা’লতা ও চুল’কানি হতে পারে। বিভিন্ন গবেষ’ণা প্রতি’বেদনে পিয়াজ সংশ্লিষ্ট মারা’ত্মক পার্শ্বপ্র’তিক্রিয়ার কথা পাওয়া যায়নি, কিন্তু পিয়াজ খাওয়ার পর আপনার ত্ব’ক লা’ল হলে, মুখে ফো’লা বা অস্ব’স্তিকর অনু’ভূতি হলে, শ্বা’স নিতে ক’ষ্ট হলে অথবা র’ক্তচাপ কমে গেলে এটি অ্যা’নাফাইল্যাক্টিক রিয়্যা’কশনের লক্ষ’ণ হতে পারে। এক্ষেত্রে জ’রুরি মে’ডিক্যাল চিকি’ৎসা নেওয়ার প্রয়োজন হয়।*

*আ’ন্ত্রিক গ্যা’স: যুক্তরা’ষ্ট্রের ন্যা’শনাল ইনস্টিটি’উট অ’ব হেল’থ অনুসারে, মানুষের পাক’স্থলি বেশিরভাগ সু’গার হ’জম করতে পারে না, যা অবশ্যই অ’ন্ত্রে চলে আসে- অন্ত্রে’র ব্যাকটে’রিয়া একটি প্রক্রি’য়ায় এসব সুগা’রকে ভা’ঙে, যার ফলে গ্যা’স উৎ’পন্ন হয়। পিয়াজে প্রকৃতিগতভাবে ফ্রু’কটোজ রয়েছে, যা কিছু লোকের ক্ষেত্রে আ’ন্ত্রিক গ্যা’সের উৎস হতে পারে। পিয়াজ সংশ্লি’ষ্ট গ্যাসের ল’ক্ষণ হিসেবে পেট ফেঁ’পে যেতে পারে, পে’টে অ’স্বস্তি হতে পারে, ঘনঘন বাত’কর্ম হতে পারে ও মুখ থেকে দুর্গ’ন্ধময় শ্বা’স বের হতে পারে।*

*আপনার পিয়াজের প্রতি ফু’ড ইনটলা’রেন্স থাকলে এসব উপ’সর্গ আরও খারাপ হতে পারে। ফুড ইনট’লারেন্স হচ্ছে পরিপা’কতন্ত্র কর্তৃক কিছু নির্দিষ্ট খাবার হজ’মের অক্ষ’মতা। ফু’ড ইনট’লারেন্স জীবননা’শক না হলেও এটি ব’মি ব’মি ভাব, ব’মি ও ডায়’রিয়ার কারণ হতে পারে।*
*বুক’জ্বালা: বুক’জ্বালা হচ্ছে এমন একটি অবস্থা যেখানে পাক’স্থলির অ্যা’সিড খাদ্য’নালিতে ওঠে আসে ও বুকে জ্বালা’পোড়ার অনু’ভূতি সৃ’ষ্টি করে। আমে’রিকান জা’র্নাল অ’ব গ্যা’স্ট্রো এন্টা’রোলজিতে প্রকাশিত একটি গবে’ষণা বলছে, বুকজ্বা’লা নেই এমন লোকেরা পিয়াজ খেলে সমস্যা হওয়ার কথা নয়, কিন্তু দীর্ঘস্থা’য়ী বুকজ্বা’লা বা গ্যা’স্ট্রিক রিফ্লা’ক্স ডি’জিজের লোকেরা পিয়াজ খেলে উপ’সর্গের মা’ত্রা বৃ’দ্ধি পেতে পারে।*

*এছাড়া, পিয়াজ খাওয়ার পর গর্ভব’তী নারীদের বুকে জ্বালা’পোড়া অনু’ভব হতে পারে। তাই যারা পিয়াজ খাওয়ার পর বুকে অস্ব’স্তি অনুভব করেন তাদের পিয়াজের ব্যবহার সী’মিত করা উচিত।*
*ড্রা’গ ইন্টা’র‍্যাকশন: আপনাকে আ’শ্বস্ত করা হচ্ছে যে পিয়াজ বেশিরভাগ ওষুধের কার্য’কারিতায় প্র’ভাব ফেলে না। কিন্তু পিয়াজ পাতায় প্রচুর পরিমাণে ভিটা’মিন কে রয়েছে বলে কিছু ও’ষুধ সে’বনকালে এর ব্যবহার সী’মিত করতে হবে। আপনি প্র’চুর পরিমা’ণে পিয়াজ পাতা খেলে এর ভি’টামিন কে কিছু রক্ত পাত’লাকারী ওষু’ধের কার্য’কারিতা কমাতে পারে, যেমন- কৌ’মাডিন। যারা র’ক্ত পাত’লাকারী ও’ষুধ সে’বন করেন তাদের খাবার সং’ক্রান্ত যেকোনও পরিবর্তনের পূর্বে চিকিৎ’সকের সঙ্গে পরা’মর্শ করা উচিত। সূত্র: লাই’ভসায়েন্স।*