প্রচ্ছদ বিশ্ব *আন্তর্জাতিক আদা’লতে রোহিঙ্গা গণহ’ত্যা মা’মলা: গাম্বি’য়ার পাশে কানাডা*

*আন্তর্জাতিক আদা’লতে রোহিঙ্গা গণহ’ত্যা মা’মলা: গাম্বি’য়ার পাশে কানাডা*

396
*আন্তর্জাতিক আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা: গাম্বিয়ার পাশে কানাডা*

*মিয়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর পরিচালিত সা’মরিক হ’ত্যাযজ্ঞ, জাতিগত নি’ধন, গণ’হত্যা, ধর্ষ’ণ, নির্যা’তন ও নি’পীড়নের বিরু’দ্ধে আন্তর্জাতিক আদা’লতে মা’মলা করেছে ইসলামি সহযোগিতা সং’স্থার (ওআ’ইসির) সদস্য রাষ্ট্র গাম্বিয়া।*
*সোমবার ১১ (নভেম্বর) এ ই’স্যুতে আন্তর্জাতিক আ’ইনের বি’ধান অনুসারে মিয়ানমারকে বি’চারের মুখোমুখি করতেই দ্য হে’গে অবস্থিত জাতিসং’ঘের সর্বোচ্চ আ’দালতে এই মাম’লাটি দা’য়ের করেন গা’ম্বিয়ার একদল আ’ইনজ্ঞ। মূলত ওআ’ইসি’র অন্তর্ভূক্ত ৫৭টি মুসলিম রাষ্ট্রের প্রতিনিধি হিসেবে এই মা’মলা দা’য়ের করে তারা।*

*এদিকে, গাম্বি’য়ার এমন পদক্ষে’পকে স্বাগত জানিয়ে মিয়ানমারকে বি’চারের আওতায় আনতে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে কানাডা।*
*এ প্রসঙ্গে কানাডার প্রবীন রাজনীতিক এবং কানা’ডিয়ান লিবা’রেল পা’র্টির এক সময়ের অন্তর্বর্তী’কালীন নে’তা বব রে বলেন, দীর্ঘ সময় প’র্দার আড়াল থেকে আমি রোহিঙ্গাদের পরিস্থি’তি পর্য’বেক্ষণ করেছি। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর স’হিংসতা, যৌ’ন নি’পীড়ন, ঘৃ’ণামূলক বক্তব্য, গ’ণহত্যা, পদ্ধতিগত বৈ’ষম্যের বিরু’দ্ধে যে পদ’ক্ষেপ মিয়ানমার নিয়েছে তার জন্য তারা জবাব’দিহিতা করতে বা’ধ্য। বিশেষ করে ২০১৭ সালের আগস্টে রোহিঙ্গাদের ওপর যে দম’ন নিপী’ড়ন চালানো হয়েছে তা ছিল ঘৃ’ণ্য ও বর্বরো’চিত।*

*ন্যায় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে গাম্বি’য়ার এই সাহসী পদ’ক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়ে রে বলেন, গাম্বি’য়ার দা’য়ের করা এই মাম’লাটিই হয়তো রোহিঙ্গাদের ন্যায্য প্রাপ্তির ক্ষেত্রে পাথেয় হবে। এই পদ’ক্ষেপ যেন সফ’ল হয় তারজন্য গাম্বি’য়াকে সর্বাত্মক সাহায্য প্রদানে কানাডা প্রস্তুত বলেও জানান তিনি।*
*সে সময় রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সে’নাবাহিনীর অভি’যানে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে পা’লিয়ে বাংলাদেশে আ’শ্রয় নিতে বা’ধ্য হয়। এর ফলে বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় শর’ণার্থী সং’কট তৈরি হয় এবং বাংলাদেশের মতো একটি ছোট দেশকে এই বিপু’ল জনগোষ্ঠীর বো’ঝা ব’হন করতে হচ্ছে।*

*সোমবার আফ্রিকার মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র গাম্বি’য়া মিয়ানমারের বি’রুদ্ধে গ’ণহত্যাসহ বেশ কয়েকটি অভি’যোগে ইন্টারন্যা’শনাল কো’র্ট অ’ব জা’স্টিস (আই’সিজে) ৪৬ পৃষ্ঠার একটি অভিযোগপত্র দা’খিল করেছে।*
*এই মাম’লায় গাম্বি’য়াকে আ’ইনি সহা’য়তা দিচ্ছে যুক্তরা’ষ্ট্রের বোস্ট’নভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ফো’লে হো’য়াগ। প্রতিষ্ঠা’নটির আশা, আগামী মাসেই এই মাম’লার প্রথম শু’নানি অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্য দিয়ে রোহিঙ্গাদের বিরু’দ্ধে গণ’হত্যার অভি’যোগে প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক আদা’লতে বিচা’রের মুখোমুখি হচ্ছে মিয়ানমার।*

*এর আগে জাতিসংঘের ফ্যা’ক্ট ফা’ইন্ডিং মি’শনের চূড়ান্ত প্রতিবে’দনে রো’হিঙ্গাদের ওপর গ’ণহত্যার জোরা’লো প্রমাণ তুলে ধরা হয়। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে কানাডার হা’উস অ’ব কম’ন্সে ওই প্রতিবে’দনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে রোহিঙ্গাদের বি’রুদ্ধে মিয়ানমারের গণ’হত্যার বিষয়টিকে স্বীকৃতি দেয়া হয়।*
*গাম্বি’য়ার এমন পদ’ক্ষেপে তাদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে কানাডার তরফ থেকে বলা হয়েছে, আমাদের অংশীদা’রদের সঙ্গে একত্রে থেকে আমরা গাম্বি’য়ার এমন পদক্ষে’পকে সমর্থন করে যাব।*
*সূ’ত্র: কানা’ডিয়ান প্রে’স।*