প্রচ্ছদ রাজনীতি *ঢাকা সি’টির আওয়ামী লীগে প্রার্থী উত্তরে রোকন, দক্ষিণে সাবের?*

*ঢাকা সি’টির আওয়ামী লীগে প্রার্থী উত্তরে রোকন, দক্ষিণে সাবের?*

361
*ঢাকা সিটির আওয়ামী লীগে প্রার্থী উত্তরে রোকন, দক্ষিণে সাবের?*

*সি’টি ক’র্পোরেশন নির্বাচনের জন্য আগামী ১৫ নভেম্বর নির্বাচন ক’মিশন তফ’সিল ঘোষ’ণা করবে বলে জানা গেছে। নির্বাচন কমি’শন আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে জানুয়ারিতে তারা নির্বাচন করতে চায়।*
*অন্যদিকে ৩০ নভেম্বর ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মে’লন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই প্রেক্ষা’পটে শেষপর্যন্ত সি’টি ক’র্পোরেশনের নির্বাচন জানু’য়ারিতে হবে কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে।*

*একাধিক সূত্র বলছে, ঢাকা দক্ষিণ এবং ঢাকা উত্তর সি’টি কর্পো’রেশনের সীমানা নিয়ে একাধিক বি’রোধ রয়েছে। নির্বাচনের তফ’সিল ঘোষ’ণার সাথে সাথে এই সমস্ত বিরো’ধ আদা’লত পর্যন্ত গড়াতে পারে এবং শেষে নির্বাচন পিছিয়ে যেতে পারে।*
*ক্ষমতা’সীন আওয়ামী লীগ চাইছে নির্বাচনকে মার্চ পর্যন্ত গড়িয়ে নিতে যেন এর মধ্যে দলটি সম্মে’লন করে সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করতে পারে। সাংগঠনিক শক্তি ও দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে যেন তারা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হতে পারে। তবে এর মধ্যে আওয়ামী লীগের সি’নিয়র নে’তারা সিটি নির্বাচন নিয়ে নানা রকম আলোচনা এবং প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ করছে।*

*সং’শ্লিষ্ট সূ’ত্রগুলো বলছে, দুটি সি’টি কর্পো’রেশন নির্বাচনেই পরিবর্তনের আভা’স পাওয়া গেছে। নতুন প্রার্থী খোঁ’জা হচ্ছে। একাধিক দায়িত্বশীল সূ’ত্র বলছে, হঠাৎ করে ঢাকা দক্ষিণে আলো’চনায় আসছেন ব্যা’রিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ। সু’প্রীম কো’র্টের এ আইন’জীবি ২০০১-২০০৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন। ২০০৬ সালে বা’তিল হয়ে যাওয়া নির্বাচনে মোহাম্মদপুরের আসন থেকে শেখ হাসিনা মনোনয়নও দিয়েছিলেন তাকে। কিন্তু শেষপর্যন্ত ওই নির্বাচন বর্জন করে আওয়ামী লীগ। নতুন নির্বাচনের আগেই ও’য়ান ই’লেভেন আসে। ওয়া’ন ই’লেভেনের সময় ব্যা’রিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ ভো’ল পাল্টে ফেলেন। তিনি সংস্কা’রপন্থী হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেন। প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সমস্ত ফা’ইল তিনি ফেরত দেন।*

*সংশ্লিষ্ট সূ’ত্রগুলো বলছে, গত কয়েকমাসে ব্যা’রিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের আবার ঘনিষ্ঠতা তৈরী হয়েছে। এই প্রেক্ষাপটেই ঢাকা দক্ষিণে একজন হেভি’ওয়েট প্রার্থীর নাম খুঁ’জতে গিয়ে রোকন উদ্দিন মাহমুদের নাম এসেছে। তবে আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোকন উদ্দিন মাহমুদের ব্যাপারে এখনো কোন সবুজ সংকে’ত দেননি বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। একটি মহল চেষ্টা করছে, শেষপর্যন্ত যেন রোকন উদ্দিন মাহমুদকে প্রার্থীতা দেওয়া হয়। এছাড়াও আরো কয়েকজন বিকল্প প্রার্থীর কথাও ভাবা হচ্ছে।*

*ঢাকা উত্তর সি’টি কর্পো’রেশনের বর্তমান মেয়রকে নিয়ে আওয়ামী লীগ খুশি নয়। যদিও তিনি মাত্র এক বছরের জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। কিন্তু আনিসুল হক যেভাবে ঢাকা উত্তর সি’টি কর্পো’রেশন সাজিয়েছিলেন, আতিকুল ইসলাম তার ধারেকাছেও নেই বলে একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছেন। বি’জিএমইএর বর্তমান সভাপতি এবং প্র’য়াত আনিসুল হকের স্ত্রী রুবানা হকের নামও আলোচনায় এসেছে উত্তরের মেয়র প’দের সম্ভব্য প্রার্থীরা তালি’কায়। কিন্তু যেহেতু তিনি বি’জিএমইএর সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন সেহেতু তাকে সি’টি কর্পো’রেশনের দায়িত্ব দেওয়া নিয়ে অনেকেরই আপ’ত্তি আছে।*

*তবে ঢাকা উত্তরের মেয়র নির্বাচনে হঠাৎ করে সাবের হোসেন চৌধুরির নাম আলো’চনায় এসেছে। সাবের হোসেন চৌধুরির ক্লি’ন ইমে’জ এবং তার কর্মদক্ষতার কারণে তাকে উত্তরের দায়িত্ব দেওয়ার ব্যাপারে আওয়ামী লীগের একটি মহ’ল ভাবছে।*
*আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষস্থা’নীয় নে’তা বলেছেন, নির্বাচনের আগে অনেক নামই আলো’চনায় আসবে। তবে শেষপর্যন্ত মেয়র হিসাবে নির্বাচনে কাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে তা নির্ধারণ করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।*