প্রচ্ছদ রাজনীতি *ছাত্র আন্দোলনের নেতৃত্ব দখল করতে ছাত্রদলকে নির্দেশনা তারেকের*

*ছাত্র আন্দোলনের নেতৃত্ব দখল করতে ছাত্রদলকে নির্দেশনা তারেকের*

239
*ছাত্র আন্দোলনের নেতৃত্ব দখল করতে ছাত্রদলকে নির্দেশনা তারেকের*

*বর্তমান পরিস্থিতিতে ঢাবি ক্যাম্পাসসহ রাজপথ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন লন্ডনে পলাতক থাকা বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। শুক্রবার রাতে লন্ডন থেকে টেলিফোনে বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর মাধ্যমে ছাত্রনেতাদের কাছে এ বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন।*
*নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ্যানীর কাছের এক ঘনিষ্ট ছাত্রনেতা নিশ্চিত করে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদল যাতে সব্বোর্চ শক্তি প্রয়োগ করে পূর্বের মত শো-ডাউন অব্যাহত রাখে সে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।*

*বিশেষকরে বুয়েটের আবরার ফাহাদ ইস্যু নিয়ে ক্যাম্পাস গরম রাখার ব্যাপারেও তাদের নির্দেশনা দেয়া হয়। তবে এবিষয়ে গোপনে ডাকসু ভিসি নুরুর সাথেও যোগাযোগ রাখার পরামর্শ দেয়া হয় ছাত্রদল নেতাদের। একটি গোপন সূত্র জানায়, লন্ডনে পলাতক থাকা তারেক রহমানের সাথে ডাকসু ভিপি নুরুর সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। তারা হোয়াটসআপ ও ভাইবারের মাধ্যমে কথা বলে থাকেন। তবে এব্যাপারে শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল সংযোগ বন্ধ পাওয়া যায়।*

*কারাগারে যেতেই হলো সম্রাটকে*
*ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে হাসপাতাল থেকে কারাগারে নেওয়া হচ্ছে। যদিও সম্রাট বারবার দাবি করছিলেন যে তিনি অসুস্থ, কিন্তু চিকিৎসকরা পরীক্ষা নীরিক্ষা এবং পর্যবেক্ষণে রাখার পর তার তেমন কোনো সমস্যাই খুঁজে পাননি। এ অবস্থায় আজ শনিবার সকালে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট (এনআইসিভিডি) থেকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। এরপর বেলা সোয়া ১১ টা নাগাদ তাকে হাসপাতাল থেকে বের করে কারাগারের গাড়িতে তোলা হয়।*

*জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালের দিকে সম্রাতের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সব সদস্য সম্রাটকে দেখেছেন। বোর্ডের সিদ্ধান্তক্রমে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।*
*এর আগে গত মঙ্গলবার সম্রাট ‘অসুস্থ’ হয়ে পড়লে চিকিৎসার জন্য তাকে কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ঢাকায় আনা হয়। প্রথমে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। সেখান থেকে সম্রাটকে হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউটে পাঠানোর পরামর্শ দেন চিকিৎসক। ওইদিন সকালেই সম্রাটকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়।*