প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *ক্যাসিনোর লাইসেন্স নিতে হবে, ট্যাক্স দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী*

*ক্যাসিনোর লাইসেন্স নিতে হবে, ট্যাক্স দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী*

282
*ক্যাসিনোর লাইসেন্স নিতে হবে, ট্যাক্স দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী*

*ক্যাসিনো বা জুয়ার জন্য দেশের একটি জায়গা নির্ধারণ করে দেয়ার কথা বলেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘যারা ক্যাসিনো ও জুয়া খেলে অভ্যস্ত হয়ে গেছে- তাদের কেউ কেউ হয়তো দেশ থেকে ভেগে গেছে। এখানে-সেখানে খেলার জায়গা খোঁজাখুঁজি করছে। আমি বলেছি, একটা দ্বীপ মতো জায়গা খুঁজে বের করো, সেই দ্বীপে আমরা সব ব্যবস্থা করে দেব। দরকার হলে, ভাসানচর বিশাল দ্বীপ, এর একপাশে রোহিঙ্গা, আরেকপাশে এই ক্যাসিনোর ব্যবস্থা করে দেব। সবাই ওখানে চলে যান।’*

*তিনি বলেন, কারা কারা এসব করতে চান, লাইসেন্স নিতে হবে, ট্যাক্স দিতে হবে। তারপর সবাই করেন, আমার কোনো আপত্তি নাই। সেই ব্যবস্থাই করে দেব।*
*বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকালে গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।*
*প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন যারা লুকিয়ে-চুরিয়ে এটা-সেটা করে, এটা তো সমাজের ও দেশের জন্য ক্ষতিকর। এক চরে পাঠিয়ে দিলাম সব। দেশ তো ঠিকই থাকলো। এ ছাড়া তো আর কোনো উপায় দেখছি না। এতে আমরা ট্যাক্স পাবো, তো টাকা পাবো।*

*প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্যে সাংবাদিক সারির কয়েকজন হেসে উঠলে তিনি বলেন, আমি বাস্তবতাটাই বলছি। পরে প্রধানমন্ত্রী নিজেও হেসে ফেলেন।*
*তিনি বলেন, বাস্তবতার নিরিখে বলছি, অভ্যাস যদি বদভ্যাসে পরিণত হয়ে যায়, এই বদভ্যাস যাবে না, বার বার খোঁজাখুঁজি করতে হবে। তাই বার বার খোঁজাখুঁজি না করে একটা জায়গা ঠিক করে দেব। ভাসানচর খুব বড় জায়গা। অসুবিধা নেই। ১০ লাখ লোকের বসতি দেয়া যাবে।*

*‘আমি সরকার প্রধান, ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেশ চালাই না’*
*‘আমি একটা দেশের সরকার প্রধান, ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেশ চালাই না’ মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের মানুষের ভালো-মন্দ সব সময় আমি খেয়াল রাখি।*
*প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি বুঝেছি, কারণ আপনারা এর আগে ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে রাষ্ট্র পরিচালনা দেখেছেন। অনেক রাষ্ট্রপ্রধান বেলা ১২টায় ঘুম থেকে উঠে ‘কী হয়েছে’ জানতে চেয়েছেন। আমি বুঝি না, কেন আপনারা এই প্রশ্নটা করেন। আমি একটা দেশের সরকার প্রধান। কেউ আমাকে দায়িত্ব চাপিয়ে দেয় না, আমি নিজে থেকে সব খবর রাখি। কারণ আমি ঘুমিয়ে দেশ চালাই না। এ দেশ আমার, এ দেশের মানুষ আমার, আমি তাদের ভালো-মন্দ নজরদারিতে রাখি।*

*সাম্প্রতিক ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর সম্পর্কে দেশবাসীকে জানাতে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে ২২ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্ক সফর করেন। সেখান থেকে ফিরে ৩ থেকে ৬ অক্টোবর দিল্লি সফর করেন।*