প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় *সেলিমের বাসা থেকে ৮ কোটির চেক-৫০ লাখ টাকা উদ্ধার*

*সেলিমের বাসা থেকে ৮ কোটির চেক-৫০ লাখ টাকা উদ্ধার*

419
*সেলিমের বাসা থেকে ৮ কোটির চেক-৫০ লাখ টাকা উদ্ধার*

*গিয়াসউদ্দিন আল মামুনকে একটি বিএমডব্লিউ গাড়ি উপহার সেলিম প্রধান*
*অর্থ পাচার মামলায় দণ্ডিত বিতর্কিত ব্যবসায়ী, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বন্ধু গিয়াসউদ্দিন আল মামুনকে একটি বিএমডব্লিউ গাড়ি উপহার দিয়েছিলেন অনলাইনে ক্যাসিনো ব্যবসার মূলহোতা সেলিম প্রধান। গ্রেপ্তারের পর তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে একথা জানিয়েছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন ( র‍্যাব)।*

*র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম আজ মঙ্গলবার বিকেলে সেলিম প্রধানে অফিস ও বাসায় অভিযান শেষে এক স্পট ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান।*
*তিনি বলেন, ‘সেলিম প্রধানের জন্ম ১৯৭৩ সালে ঢাকাতে। সে তার ভাইয়ের হাত ধরে ১৯৮৮ সালের দিকে জাপানে চলে যায়। জাপানে গিয়ে সে মূলত গাড়ির ব্যবসায় নিয়োজিত হয়। পরবর্তীতে সে জাপানীদের সঙ্গে থাইল্যান্ডে চলে আসে। এরপর ক্যাসিনো ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন।’*

*সারোয়ার বিন কাশেম বলেন, ‘তার (সেলিম) নথি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, চুক্তিপত্রগুলো অনুসারে উত্তর কোরীয় কোনো ব্যক্তি ক্যাসিনো ব্যবসার ৫০ ভাগ টাকা পেত। আর বাকি ৫০ ভাগ টাকা সেলিম প্রধানের। ক্যাসিনো হচ্ছে ভার্চুয়াল ক্যাসিনো, মোবাইলে সফওয়্যার দিয়ে এটা খেলা হয়।’*
*সেলিমকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পেরেছি যে, গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের সে একজন খুব ভালো বন্ধু ছিলেন। তাকে একটি বিএমডব্লিউ গাড়িও উপহার দিয়েছেন সেলিম। সে (সেলিম প্রধান) অনেক টাকা লন্ডনে পাঠিয়েছে বলে জানা গেছে।’*

*সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক বলেন, ‘গিয়াসউদ্দিন আল মামুনকে গাড়ি কবে দিয়েছিল, সেটা তদন্তের পরে জানানো হবে।’*
*বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক লোকমান হোসেনের সঙ্গে সম্পৃক্ততার ব্যাপারে আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘লোকমানের সঙ্গে তার এখনো কিছু পাওয়া যায়নি। তদন্ত করা হচ্ছে।’*

*সেলিমের বাসা থেকে ৮ কোটি টাকার চেক ও নগদ ৫০ লাখ টাকা উদ্ধার*
*
অনলাইন ক্যাসিনোর মূলহোতা সেলিম প্রধানের রাজধানীর বনানী এবং গুলশানের বাসা থেকে নগদ ৫০ লাখ টাকা, ৮ কোটি টাকার চেক, ২৩টি দেশের মুদ্র এবং বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।*
*মঙ্গলবার অভিযান শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের ডিরেক্টর সারোয়ার বিন কাসেম।*

*এর আগে সোমবার রাতে সেলিম প্রধানের গুলশানের কার্যালয় থেকে বিপুল পরিমাণ মদ ও দেশি-বিদেশি অর্থ উদ্ধার করা হয়। রাতেই তার গুলশান-২-এর ৯৯ নম্বর সড়কে ১১/এ বাড়িতেও অভিযান শুরু করে র‍্যাব সদস্যরা।*
*তারও আগে সোমবার দুপুরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থাই এয়ারওয়েজের ব্যাংককগামী একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধানকে আটক করে র‌্যাব। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ফ্লাইট ছাড়ার আগ মুহূর্তে তাকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে সেলিমের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার কার্যালয়ে অভিযান শুরু করা হয়।*
*র‌্যাব জানায়, সেলিম অনলাইন ক্যাসিনোর মূল হোতা। তিনি পি-২৪ নামে একটি অনলাইন ক্যাসিনোর মাধ্যমে অর্জিত আয় বিদেশে পাচার করে।*