প্রচ্ছদ আইন-আদালত “জিজ্ঞা’সাবাদে খালেদ যাদের নাম বললেন, ক্যা’সিনোর ২ নারী যা বললেন”

“জিজ্ঞা’সাবাদে খালেদ যাদের নাম বললেন, ক্যা’সিনোর ২ নারী যা বললেন”

1817

*কোটি কোটি টাকার ক্যা’সিনো সেট আপ, নারী-পুরুষ এনে সেগুলো পরিচালনা করাসহ নানা অবৈ’ধ কাজ চলতো ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার ইয়ং’মেন্স ক্লা’বে। এত বড় আয়োজনের বিষয়টি আইনশৃ’ঙ্খলা বাহি’নীর কেউ জানতো না? জানলেও তারা চুপ ছিল কেন?
আ’টকের পর র‍্যা’ব-৩ কার্যালয়ে নিয়ে খালেদ মাহমুদকে এসব বিষয়ে জিজ্ঞা’সাবাদ করেছে র‍্যা’ব। ক্যাসি’নো থেকে উপা’র্জনের টাকা কার কার কাছে যেত, সে নিয়েও প্রশ্ন করা হয় তাকে।

*এর আগে বুধবার রাতে অবৈ’ধ অ’স্ত্র, মাদ’ক ও ক্যা’সিনো চা’লানোর অভি’যোগে খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে অস্ত্র’সহ আ’টক করে র‍্যা’ব। আট’কের পর তাকে র‍্যা’ব-৩ এর কার্যা’লয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।
দায়ি’ত্বশীল সূত্র জানায়, রাতভর জিজ্ঞা’সাবাদে মতিঝিলের ক্যাসি’নো পরিচাল’নার বিষয়টি মতিঝিল থানা পুলিশ, মতিঝিল জোন, পুলিশ সদর দপ্তর ও ডিএমপি সদর দফতরের কর্মকর্তারা জানতেন বলে দা’বি করেন খালেদ। তবে পুলিশের সঙ্গে ক্যাসি’নো পরিচা’লনার জন্য কোনো আর্থিক লেন’দেনের বিষয়ে সুস্পষ্টভাবে কিছু বলেননি তিনি।
সূত্র জানায়, খালেদের ক্যা’সিনোর বিষয়ে পুলিশ ছাড়াও আই’নশৃঙ্খলা বা’হিনীর অন্য সংস্থা এবং রাজনীতিক প্রভাব’শালী ব্যক্তিরা জানতেন। তাদের ‘ম্যানে’জ করে’ ক্যা’সিনো চালাতেন বলে জিজ্ঞাসা’বাদে স্বী’কার করেছেন তিনি।

*জিজ্ঞা’সাবাদের বিষয়ে র‍্যা’বের লিগ্যা’ল ও মি’ডিয়া উইং’য়ের পরি’চালক সারোয়ার বিন কাশেম গণমাধ্যমে বলেছেন, তাকে আমরা সংক্ষিপ্ত সময়ে জিজ্ঞা’সাবাদ করেছি। জিজ্ঞাসা’বাদে তার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছি। তবে তদ’ন্তের স্বা’র্থে সেগুলো এখনই প্রকাশ করা যাবে না। বেশ কয়েকজন প্রভা’বশালী ব্যক্তির নাম পাওয়া গেছে। ঢাকায় অবৈ’ধভাবে কোনো ক্যা’সিনো থাকতে দেবে না র‍্যাব।
সূত্র জানায়, তাকে আজ দুপুরে গুলশান থানা পুলিশের কাছে হস্তা’ন্তর করা হবে। হস্তা’ন্তরের পর তাকে জিজ্ঞাসা’বাদে রি’মান্ড চেয়ে আদা’লতে পা’ঠাবে গুলশান থানা পুলিশ।

*ক্যাসি’নোতে আ’টক ২ নারী যা বললেন

*যুবলীগের কয়েকজন নেতাকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষো’ভ প্রকা’শের চার দিনের মাথায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় চারটি ক্যা’সিনোতে সাঁ’ড়াশি অভি’যান চালিয়েছে র‍্যা’পিড অ্যাক’শন ব্যাটা’লিয়ন (র‍্যা’ব)। এ সময় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়াকে অস্ত্র’সহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে। খালেদসহ রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের ছত্রছা’য়ায় পরিচাল’নাধীন একাধিক ক্যাসি’নো সিল’গালা করে দেওয়া হয়েছে। অভিযা’নে মোট ১৮২ জনকে আট’কের পর বিভিন্ন মেয়াদে কারা’দণ্ড দিয়েছেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া জ’ব্দ করা হয়েছে বিপু’ল অংকের টাকা, ম’দ ও বি’য়ারসহ জু’য়া খেলার বিভিন্ন সর’ঞ্জাম।

*অ’ভিযানে র‌্যা’বের হাতে মেঘা ও লিজা নামের দুই তরুণী আ’টক হলেও তাদের ছে’ড়ে দেওয়া হয়। ক্যাসি’নোতে তারা ‘ডি’লার’ প’দে চাকরি করেন বলে জনিয়েছেন। লিজা বলেন, ‘ক্যা’সিনোতে দুই সি’ফটে জু’য়া খে’লা হয়। সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা এবং রাত ৮টা থেকে সকাল ৮টা। জু’য়ার বো’র্ডগুলো চীনা নাগরিকরা চালু করে। নেপালিরা বোর্ড পরিচালনা করে। তারা এগুলো অপা’রেট করতে দ’ক্ষ।’

*লিজা আরও বলেন, ‘আমরা মাসিক ও দিন হিসেবে এখানে চাকরি করি। আমরা কখনও রিসি’পশনে, কখনও বোর্ডে দায়ি’ত্ব পালন করি।’
মেঘা বলেন, ‘প্রতি শিফটে ৭০-৮০ জন মানুষ খেলে। কখনও বেশিও আসে। তবে রাতের বেলায় বেশি মানুষ থাকে।’ সেখানে অনেকে মা’দক সে’বন করে বলেও তারা জানিয়েছে।