প্রচ্ছদ রাজনীতি “তিন সিটিতে ৩ জনই বা’দ, নতুন মেয়র প্রার্থী কারা?”

“তিন সিটিতে ৩ জনই বা’দ, নতুন মেয়র প্রার্থী কারা?”

95

*ঢাকা উত্তর, দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম- এই তিন কর্পোরেশনেই মেয়রপদে নতুন প্রার্থী ‍খুঁ’জছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারের দায়ি’ত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, আগামী মেয়র নির্বাচনে তিন সিটিতেই মেয়রপদে পরিবর্তন আনার নীতিগত সি’দ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

*প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো বলছে, প্রধানমন্ত্রী নিজে মেয়রপ্রার্থী খুঁ’জছেন। যাদেরকে পছন্দ করছেন তাদের সঙ্গে একান্তে কথা বলছেন, তাদের মতামত নিচ্ছেন, মেয়রপদে নির্বাচনের জন্য তারা কতটুকু আগ্রহী বা প্রস্তু’ত রয়েছেন কিনা- এ ব্যাপারে কথা বলছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত মেয়রপদে তিন সিটিতে কারা বা’ছাই হচ্ছে, তা চূড়ান্ত হয়নি বলে আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে।

*আগামী ডিসেম্বরে ঢাকা উত্তর, দক্ষিণ এবং ২০২০ এর মার্চে চট্টগ্রামে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে। ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন ঘো’ষণা করেছে যে মেয়র নির্বাচনের জন্য তারা প্রস্তু’তি শুরু করেছে। চলতি মাসেই মেয়র নির্বাচনের দিনক্ষণের ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন আনুষ্ঠানিক ঘো’ষণা দিতে পারে।

*সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, চট্টগ্রামের মেয়রের প্রতি আওয়ামী লীগ সভানেত্রী এবং দল পুরোপুরি বি’রক্ত। কাজেই আ জ ম নাসির যে আবার মেয়রপ্রার্থী হচ্ছেন না- তা নিশ্চিত। সেক্ষেত্রে কে মেয়রপ্রার্থী হবেন তা নিয়ে নানা জল্প’না-কল্প’না চলছে। আওয়ামী লীগ সভাপতি এরই মধ্যে তিনজনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। যাদেরকে তিনি মেয়র হিসেবে আগামী নির্বাচনে প্রার্থী করার ব্যাপারটি বিবে’চনা করছেন বলে ইঙ্গি’ত পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে একজন চট্টগ্রামের বাসিন্দা হলেও এখন ঢাকায় একটি অঙ্গসংগঠনের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ছাড়াও আরও দুজনের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সভাপতি কথা বলেছেন।

*ঢাকা উত্তরের আতিকুল ইসলামের ব্যাপারে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ হতা’শা প্রকা’শ করেছেন। আতিকুল ইসলামকে যে আশা নিয়ে মেয়রপদে মনোনীত করা হয়েছিল, সে আশা ভ’ঙ্গ হয়েছে। তিনি আনিসুল হকের স্বপ্নপূরণ তো দূরের কথা, আনিসুল হকের ধারেকা’ছেও যেতে পারেননি বলে আওয়ামী লীগের একাধিক শীর্ষনেতা বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীও ঢাকা উত্তরের মতো স্পর্শকা’তর এলাকায় একজন কর্মদক্ষ মেয়র খুঁজছেন। এ ব্যাপারে তিনি একাধিক নেতার সঙ্গে কথাও বলেছেন।

*আওয়ামী লীগের একটি সূত্র বলছে যে, রাজনীতিবিচ্ছি’ন্ন মেয়রদের দিয়ে যে নিরী’ক্ষা করা হয়েছিল আনিসুল হকের মাধ্যমে, আনিসুল হকের ক্ষেত্রে সেই নিরী’ক্ষা সফল হলেও অন্যান্য মেয়ররা সেক্ষেত্রে ব্যর্থ’তার পরিচয় দিয়েছে। তাই একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিকেই ঢাকা উত্তরের মেয়র মনোনয়নের বিষয়টি বিবেচনা হচ্ছে।

*অন্য একটি সূত্র বলছে যে, রাজনৈতিক বিবেচনায় নয়, বরং জনপ্রিয় ব্যক্তি যিনি কাজ করতে পারবেন এবং উত্তর সিটি কর্পোরেশনের আমূল পরি’বর্তন আনতে পারবেন- এমন একজন ব্যক্তিকে খোঁ’জা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে যে, একটি ব্যবসা সংগঠনের নারীপ্রধানের নাম মেয়র হিসেবে আলোচনায় এসেছে। এছাড়াও, আওয়ামী লীগের একজন জনপ্রিয় নেতার নামও ঢাকা উত্তরের মেয়র হিসেবে আলো’চনায় এসেছে।

*ঢাকা দক্ষিণের মেয়রের কার্যক্রমেও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ হতা’শা প্রকাশ করেছেন। বিশেষ করে, সাইদ খোকন মেয়র থাকা অবস্থায় দক্ষিণ আওয়ামী লীগ অত্যন্ত দুর্ব’ল হয়ে পড়েছে। তিনি নিজেই আওয়ামী লীগের কোন্দ’লে জড়ি’য়ে পড়া’য় নেতৃত্ব দিচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তারপরেও সাইদ খোকন প্রয়া’ত মোহাম্মদ হানিফের পুত্র হওয়ায় এখনো বা’দ প’ড়াদের তা’লিকায় নিশ্চিত নন। আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা বলছেন, শেষপর্যন্ত হয়ত সাইদ খোকনকে আরেকবার সুযোগ দেওয়া হতে পারে। তবে অন্য একটি সূত্র বলছে যে, মোহাম্মদ হানিফের পুত্র হিসেবেই এবার তিনি দায়িত্ব পালন করেছিলেন। কিন্তু দ্বিতীয় দফা তাকে আর সুযোগ দেওয়া হবে না।

*দক্ষিণের মেয়র হিসেবে একাধিক ব্যক্তির নাম শোনা যাচ্ছে। মনোনয়নবঞ্চি’ত আওয়ামী লীগের একজন কেন্দ্রীয় নেতা এই মেয়রপদের জন্য আগ্র’হী বলে জানা গেছে। তিনি তার আগ্রহের কথা ইতিমধ্যেই আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানিয়েছেন। তবে শেষপর্যন্ত মেয়রপদে কে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাবেন তা এখনো নিশ্চিত নয়।

*তবে আওয়ামী লীগ সভাপতি দলের একাধিক ফোরামে স্পষ্ট ইঙ্গি’ত করেছেন যে, ঢাকাকে আধুনিক, সময়োপযোগী একটি মহানগরী হিসেবে তিনি গড়ে তুলতে চান। এজন্য দক্ষ মেয়রের কোনো বিকল্প নেই। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, আওয়ামী লীগ সভাপতি দায়িত্ব পালনে সক্ষ’মদের একটি সংক্ষিপ্ত তা’লিকা তৈরি করেছেন, বিভিন্ন নেতাদের তিনি পরী’ক্ষা-নিরী’ক্ষাও করছেন। শেষপর্যন্ত মেয়র হিসেবে কে চূ’ড়ান্ত হবে তা বো’ঝা যাবে আরও পরে। তবে তিনটি মেয়রের মধ্যে দুটিতে যে মেয়রপদে পরিবর্তন আসছে তা নিশ্চিত। আওয়ামী লীগ মনে করছে, বর্তমানে যারা মেয়র আছে তাদেরকে দিয়ে আগামী নির্বাচনে বৈত’রণী পার হওয়াটা কঠি’ন হবে। মূলত এই বিবে’চনা থেকেই নতুন মেয়রের বিষয়টি ভাবা হচ্ছে।