প্রচ্ছদ মুক্ত মতামত “তুমি যখন রোহিঙ্গাদের গা’লি দাও, তুমি আসলে নিজেকেই গা’লি দাও”

“তুমি যখন রোহিঙ্গাদের গা’লি দাও, তুমি আসলে নিজেকেই গা’লি দাও”

তসলিমা নাসরিন

72

*রোহিঙ্গাদের ভাষা শুনে চে’হারা দেখে কাপড়-চোপড় দেখে তো মনে হয় তারা যত না বার্মার লোক, তার চেয়ে বেশি বাংলাদেশের লোক। ১১ লক্ষ অশি’ক্ষিত লোক, তার মধ্যে অনেকেই ব’র্বর, চো’র, ডা’কাত, চোরাকার’বারি, খু’নী, ধ’র্ষক, ধ’র্মান্ধ, সন্ত্রা’সী। বাংলাদেশে এমন লোকের কি আদৌ অভাব? বাংলাদেশের লোকদের চ’রিত্র কি রোহিঙ্গাদের চ’রিত্র থেকে খুব আলাদা? বাংলাদেশে যদি বাস করতে চায় এরা, করুক। মূলস্রোতে মিশে যাক। ১৫ কোটি মানুষের দেশে ১১ লক্ষ এমন কোনও বড় সংখ্যা নয়। পৃথিবীতে সবারই অ’ধিকার আছে যেখানে খুশি যাওয়ার, যেখানে খুশি বাস করার।

*জার্মানি যখন ১১ লক্ষ অশি’ক্ষিত আরব মুসলমানদের আ’শ্রয় দিয়েছে, বাংলাদেশের লোকেরা খুশিতে হাত’তালি দেয়নি? দিয়েছে। এখন রোহিঙ্গাদের প্রশ্নে জার্মানির মতো হতে পারছে না কেন? অন্যে উদার হলে ঠিক আছে, নিজের উদার হওয়ার দরকার নেই?

*রোহিঙ্গাদের তুচ্ছ’তাচ্ছিল্য করছো কেন বাপু? তোমরা যখন ইউরোপ, আমেরিকায় গিয়ে আশ্রয় ভি’ক্ষে চাও, তোমরাও তখন এক একটা রোহিঙ্গা। তোমরা যখন আরব দেশে কাজ করতে যাও, তোমাদেরও রোহিঙ্গাদের মতো দেখায়।
তুমি যখন রোহিঙ্গাদের গা’লি দাও, তুমি আসলে নিজেকেই গা’লি দাও। (ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)।