প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় “জাপা চেয়ারম্যান রওশন, পা’ল্টা ব্য’বস্থা নে’য়ার হু’মকি জিএম কাদেরের”

“জাপা চেয়ারম্যান রওশন, পা’ল্টা ব্য’বস্থা নে’য়ার হু’মকি জিএম কাদেরের”

35

*জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হিসেবে রওশনের নাম ঘোষ’ণার প্রতিক্রিয়ায় দলের আরেক অংশের চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের (জিএম কাদের) বলেছেন, কেউ নিজেকে রাজা ঘোষ’ণা করলেই হয় না। তার রাজ্য ও প্রজা সমর্থন থাকতে হয়।
তিনি বলেন, পার্টির নিয়মের বাইরে কেউ কাউকে চেয়ারম্যান ঘোষ’ণা করতে পারে না। যে কেউ একজন ঘোষ’ণা করলেই তা হবে না।

*বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এর কিছুক্ষণ আগে গুলশানে রওশন এরশাদের বাসায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রওশনকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘো’ষণা করেন দলের সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। একই সঙ্গে আগামী ছয় মাসের মধ্যে কাউন্সিল করারও ঘো’ষণা দেন তিনি।
জি এম কাদের বলেন, সংবাদ সম্মেলনের খবর শুনেছি। কেউ পার্টির শৃঙ্খলা ভ’ঙ্গ করলে তার বিরু’দ্ধে গণতান্ত্রিকভাবে ব্যব’স্থা নেয়া হবে।

*তিনি বলেন, রওশন এরশাদ আমার মায়ের মতো, তাকে আমি শ্রদ্ধা করি, শ্রদ্ধা করতে চাই। অন্য একজন তাকে পার্টির চেয়ারম্যান ঘো’ষণা করেছেন। তিনি (রওশন) নিজের মুখে কিছু বলেননি। তার কতটুকু সমর্থন রয়েছে, তা ভবিষ্যতে দেখা যাবে। কেউ পার্টির শৃঙ্খলা ভ’ঙ্গ করলে গঠনতন্ত্র মোতাবেক তার বিরু’দ্ধে ব্য’বস্থা নেয়া হবে বলেও হুঁশিয়া’রি উচ্চারণ করেন তিনি।

*জিএম কাদের বলেন, এরশাদের মৃত্যু’তে তিনটি বিষয়ে শূন্যতা তৈরি হয়। শূন্যতাগুলো হলো পার্টির চেয়ারম্যান পদ, পার্লামেন্টারী পার্টির নেতা ও তার মৃ’ত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর আসন। গঠনতন্ত্র মোতাবেক পার্লামেন্টারী পার্টির নেতা হবেন পার্টির চেয়ারম্যান। পার্টির প্রেসিডিয়ামের বৈঠকে সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে স্পিকারকে। এখন বিষয়টি স্পিকার নির্ধারণ করবেন।

*জিএম কাদের বলেন, চেয়ারম্যান আমি কিনা প্রশ্ন উঠেছে, গঠনতন্ত্রের ২০ এর ‘ক’ ধারায় স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে, পার্টির চেয়ারম্যান যাকে খুশি যে কোনো পদে নিয়োগ, বহি’ষ্কার কিংবা স্থলাভিষিক্ত করতে পারবেন। এটা আমরা মনে করছি, ওনার (এরশাদ) স্থলাভিষিক্ত করতে পারবেন। তিনি মৃ’ত্যুর আগে সাংগঠনিক আদেশে আমাকে চেয়ারম্যান করে গেছেন। তার মৃ’ত্যুর পর পার্টির প্রেসিডিয়ামের সভায় আমাকে চেয়ারম্যান হিসেবে ধন্যবাদ গৃহীত হয়েছে। এখন কেউ যদি আমাকে চেয়ারম্যান না মানেন, সেটা তার বিষয়। তিনি বলেন, কাউকে ইচ্ছা করে ছোট করা কিংবা বাদ দেয়া হয়নি। যা করা হয়েছে, পার্টির স্বার্থে করা হয়েছে।

*সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা পার্টির মূলধারার সঙ্গেই আছেন। তিনি একটি জরুরি সভায় যোগ দেয়ার কারণে এখানে আসতে পারেননি।
পার্লামেন্টারি বোর্ড গঠন নিয়ে উত্থাপিত অভিযোগ প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, এরশাদ জীবিত থাকা অবস্থায় যেভাবে বোর্ড গঠন করেছিলেন, সেভাবেই করা হয়েছে। শুধু একজন সদস্য নিজে থেকে সরে যেতে চাইলে তার স্থানে কাজী ফিরোজ রশীদকে যুক্ত করেছি।

*তিনি আরও বলেন, জাতীয় নির্বাচন ও একটি উপনির্বাচনে একই বোর্ড নাও হতে পারে। এখানে আঞ্চলিকতার প্রাধান্য থাকতেই পারে। পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ীই আমি দায়িত্ব পালন করছি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু, সংসদ সদস্য সালমা ইসলাম, সুনীল শুভরায়, লে. জে. (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী, সংসদ সদস্য নাজমা আক্তার, রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, এসএম ফকরউজ জামান জাহাঙ্গীরসহ নেতাকর্মীরা।