প্রচ্ছদ বিজ্ঞান-প্রযুক্তি “চাঁদের বুকে বাঙালি পদার্থ বিজ্ঞানীর নাম”

“চাঁদের বুকে বাঙালি পদার্থ বিজ্ঞানীর নাম”

50

*চাঁদের পিঠের একটি বৃহৎ গহ্বরের (ক্রেটার) নামকরণ করা হয়েছে পদ্মভূষণ খেতাবজয়ী বাঙালি পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক শিশির কুমার মিত্রের নামে। গহ্বরটির নাম ‘মিত্র ক্রেটার।’
ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর চন্দ্রযান-২ চাঁদের পিঠের বিভিন্ন স্থানের একাধিক বৃহৎ গহ্বরের (ক্রেটার) ছবি তুলে পাঠাচ্ছে। তাদের মধ্যে ওই গহ্বরটির এ নামকরণ করা হল।

*ইসরো জানায়, গত ২২ জুলাই ভারতীয় সময় দুপুর ২টা ৪৩ মিনিটে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে চন্দ্রযান-২ উৎক্ষেপণ করা হয়। ২০ আগস্ট চন্দ্রযান-২ চাঁদের কক্ষপথে ঢুকে পরে। ২ সেপ্টেম্বর এটিকে চাঁদ থেকে ১০০ এবং ৩০ কিলোমিটার দূরত্বে নামিয়ে আনা হবে। এরআগে চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪ হাজার ৩৭৫ কিলোমিটার উচ্চতা থেকে টেরেন ম্যাপিং ক্যামেরা-২ এর সাহায্যে চন্দ্রযান-২ ছবি পাঠনো শুরু করে। তাতে একাধিক বৃহৎ গহ্বর (ক্রেটার) চোখে পড়েছে। ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি সোমবার সে গুলি প্রকাশ করেছে।

*বিজ্ঞানীরা বলেন, এই গহ্বরগুলি আসলে আগ্নেয়গিরির জ্বা’লামুখ। যেগুলি অতীতে সক্রিয় ছিল। এখন সেই আগ্নেয়গিরি গুলি মৃ’ত। ওই সব গহ্বরের মধ্যে একটির নাম দেয়া হয়েছে পদ্মভূষণ খেতাবজয়ী এক বাঙালি পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক শিশির কুমার মিত্রের নামে। যার নাম ‘মিত্র ক্রেটার।’ ইসরোর বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘‘মিত্র নামের গহ্বরটি ৯২ কিলোমিটার চওড়া।’’

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা