প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় “জিয়া-এরশাদকে অনুসরণ করে খালেদা-তারেক হ’ত্যাকাণ্ড চালায়”

“জিয়া-এরশাদকে অনুসরণ করে খালেদা-তারেক হ’ত্যাকাণ্ড চালায়”

77

*সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা অনেক তথ্য বের করেছেন। এই তথ্যটা বের করেন, তারেক রহমান খালেদা জিয়ার বড় ছেলে ৫ নম্বরে তার যে শ্বশুড়বাড়ি- ওখানে এসে সে ১০ মাস থাকলো এবং পহেলা আগস্ট চলে গেল ক্যান্টেনমেন্টের বাসায়। ওখানে থেকে সে কী করলো? তার কাজটা কী ছিল?

*তিনি বলেন, ‘তারেকই এই গ্রে’নেড হা’মলা করিয়েছে। ১৫ আগস্ট হ’ত্যাকাণ্ডে জিয়াউর রহমান যেমন ম’দদ দিয়েছে। তেমনি ২১ আগস্টের ঘটনা তারেক ঘটিয়েছে।’
শেখ হাসিনা বলেন, একুশে আগস্ট গ্রে’নেড হা’মলায় বেঁচে থাকার কথা না। ওরা ভাবেনি যে বেঁচে থাকবো। অনেক ছোট ছোট ঘটনা আমি জানি। যারা হা’মলা করেছে তারা এক জায়গায় গিয়ে আ’শ্রয় নিয়েছে। সেখান থেকে ফোন করেছে যে আমি মা’রা গেছি কী না।

*একুশে আগস্টের গ্রে’নেড হা’মলায় নিহ’তদের স্মরণ করে তিনি বলেন, অজ্ঞাতনামা দুইজন যে মা’রা গেল তাদের খবর কেউ নেয়নি, লা’শও কেউ নেয়নি। এখন আস্তে আস্তে সবই বের হচ্ছে। কীভাবে ওই জজ মিয়াকে নিয়ে এসেছে। একজন সাধারণ মানুষকে নিয়ে এসে নির্যা’তন করে স্বী’কারোক্তি নেওয়া হয়েছিল।
তিনি বলেন, অনেক পরে মামলা করে আমরা একটা রায় পেয়েছি। আমরা আশা করি এর বিচার হবে। কিন্তু যাদেরকে আমরা হারিয়েছি তাদেরকে তো আর ফিরে পাবো না।

*শেখ হাসিনা বলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে খালেদা জিয়া তার দা’য় এড়াতে পারে না, বাবর তো স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ছিল। যদিও খালেদা জিয়াকে এই মামলায় আ’সামি করা হয় নাই।
তিনি বলেন, এই হ’ত্যা জিয়াউর রহমান শুরু করেছিল এরশাদও সেই পদাঙ্ক অনুসরণ করেছিল, খালেদা জিয়াও সেই একই পদাঙ্ক অনুসরণ করেছে।

*২০০৪ সালে আওয়ামী লীগ যখন বিরোধী দলে ছিল, তখন বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রায়ই সমাবেশ করতো আওয়ামী লীগ। তবে সব সমাবেশ দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা উপস্থিত থাকতেন না। ২১শে অগাস্ট-এর সে সমাবেশ শেখ হাসিনা উপস্থিত থাকবেন- এ কথা আগেই প্রচার করা হয়েছিল।
শেখ হাসিনা সে সমাবেশে থাকবেন বলেই দলের অধিকাংশ সিনিয়র নেতারাও সমাবেশ উপস্থিত হয়েছিলেন। একই সাথে দলের কর্মী-সমর্থকদের উপস্থিতিও ছিল বেশি।

*সমাবেশে গ্রে’নেড হা’মলার ঘটনা সবাইকে একদিকে যেমন চ’মকে দিয়েছিল, তেমনি জনমনে ব্যা’পক আ’তঙ্কও তৈরি হয়েছিল।
সে দিনের সেই ভ’য়াবহ গ্রে’নেড হা’মলা নিয়ে বুধবার (২১ আগস্ট) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
তিনি বলেন, ২০০৪ সালের সেই ভয়া’বহ হা’মলা বিএনপি-জামায়াতের ম’দদেই হয়েছে।

*প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগস্ট মাস এলেই যেন অ’শনি সং’কেত নিয়ে আসে। বারবার হা’মলা হয়েছে। বারবার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আমাকে ঢা’ল হিসেবে র’ক্ষা করেছে।
২১ আগস্ট গ্রে’নেড হা’মলা নিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া এই ধরনের ঘটনা ঘটেনি। আশা করি এর বিচার হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বোধহয় খালেদা জিয়ার তৈরি করাই ছিল যে আমি ম’রলে পরে একটা কন্ডোলেন্স জানাবে। সেটাও না কী তার প্রস্তুত করা ছিল। কিন্তু আল্লাহ বাঁচিয়ে দিয়েছেন। সেটাই বড় কথা।