প্রচ্ছদ বিশ্ব “কাশ্মীর ইস্যুতে উ’ত্তেজনা, পাকিস্তানে হা’মলা চালাতে পারে ভারত”

“কাশ্মীর ইস্যুতে উ’ত্তেজনা, পাকিস্তানে হা’মলা চালাতে পারে ভারত”

97

*কাশ্মীর নিয়ে ভারত সাথে উ’ত্তেজনার মধ্যে ফের মুখ খুলল পাকিস্তান। দেশটির সে’নাপ্রধানের দাবি, কাশ্মীরের উপর থেকে বিশ্বের নজর ঘোরানোর জন্য যে কোনও মুহূর্তে পাকিস্তানে আ’ক্রমণ করতে পারে ভারত। কিন্তু তাদের সে’নাও সবরকম জ’বাব দেওয়ার জন্য তৈরি। খবর দ্য ওয়ালের।

*পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে বৈঠকের পর এক সাংবাদিক সম্মেলনে সে’নাপ্রধান মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেন, কাশ্মীর প্রসঙ্গ থেকে চোখ ঘোরাতে পাকিস্তানের উপর আ’ক্রমণ করতে পারে ভারত।

*গফুর আরও জানান, লাইন অফ কন্ট্রোল (এলওসি) বরাবর প্রচুর সে’না মোতায়েন করা হয়েছে। কাশ্মীর ইস্যুকে নিয়ে অনিচ্ছাকৃত যু’দ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলেও স’তর্ক করেছেন তিনি। এই সাংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুরেশি বলেন, সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কাশ্মীরকে নিয়ে একটা পৃথক সেল খোলা হবে। কাশ্মীরের এই সমস্যাকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরা হবে এই সেলের প্রধান কাজ।

*জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তোলাকে তাদের কূটনৈতিক সাফল্য বলেই দাবি করেছেন কুরেশি। তিনি বলেন, পাঁচ দশক পরে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর প্রসঙ্গ উঠল। এই নিয়ে আলোচনাও হলো। ভারত আট’কানোর অনেক চেষ্টা করলেও এই আলোচনা আমাদের কূটনৈতিক সাফল্য। যদিও জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে আলোচনা ভারতের পক্ষেই গিয়েছে, তবুও তাকে নিজেদের হার না মনে করে কাশ্মীর প্রসঙ্গ নিয়ে ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অফ জাস্টিস-এ যাওয়ার চিন্তাভাবনাও করছে ইসলামাবাদ।

*জম্মু ও কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের পদক্ষেপের প্রশংসা ভুটানের

*জম্মু ও কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত যে পদক্ষেপ নিয়েছে তার ভূয়সী প্রশংসা করেছে প্রতিবেশী দেশ ভুটান। সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের মাধ্যমে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলকে তারা সাহসী ও সময়পোযোগী পদক্ষেপ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। ভুটানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত রুচিরা কাম্বোজের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদসংস্থা এএনআই ১৬ আগস্ট এ খবর প্রকাশ করে।

*এ গত ৫ আগস্ট কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে ভারত সরকার। বিরোধী রাজনৈতিক দল এ পদক্ষেপকে ‘অসাংবিধানিক’ আখ্যা দিলেও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, এতে তার পুরোপুরি আস্থা আছে। তিনি এক দেশ ও এক সংবিধান চান।

*রুচিরা কাম্বোজ বলেন, ভুটান কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের পুরো পুরোপুরি সমর্থন দিয়েছে। তাছাড়া তারা এটিকে ভারতের সম্পূর্ণ আভ্যন্তরীণ ব্যাপার বলে আখ্যা দিয়েছে। এ পদক্ষেপ জম্মু ও কাশ্মীরের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও শান্তি ও সমৃদ্ধিও বয়ে আনবে বলে বিশ্বাস করে ভুটান।