প্রচ্ছদ রাজনীতি “জাতীয় পার্টির চাঁ’দা তুলে এরশাদের ‘চল্লিশা”

“জাতীয় পার্টির চাঁ’দা তুলে এরশাদের ‘চল্লিশা”

52

*জাতীয় পার্টির তহবিলে টাকা নেই বলে জানায় দলটির সদস্যরা। তাই চাঁ’দা তুলে পার্টির সদ্যপ্রয়াত চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চল্লিশায় গণভোজের আয়োজন করা হচ্ছে। আর এ জন্য পার্টির প্রত্যেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপিকে এক লাখ টাকা করে চাঁ’দা দিতে হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

*শনিবার (১৭ আগস্ট) জাপার বনানীর কার্যালয়ে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপিদের যৌথ সভায় এ চাঁ’দা নির্ধারণ করা হয় বলে বৈঠকে উপস্থিত সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে। বৈঠকে ৫৫ জন প্রেসিডিয়াম সদস্যের মধ্যে ১৫ জন এবং ২২ জন এমপির মধ্যে ৫ জন উপস্থিত ছিলেন।

*এ বিষয়ে এরশাদের প্রেস সেক্রেটারি ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায় গণমাধ্যমে বলেন, ‘পার্টির ফান্ডে টাকা থাকতেও পারে, নাও পারে। তবে বৈঠকে পার্টির প্রত্যেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপির এক লাখ টাকা চাঁ’দা নির্ধারণ করা হয়েছে। যে পারবে সে দেবে। আর যে পারবে না সে দেবে না।’

*তিনি আরও বলেন, ‘বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রমও পার্টির সদস্যদের চাঁ’দার টাকায় চলেছে। তবে এবারের চাঁ’দার টাকা শুধুমাত্র ঢাকা ও রংপুরের গণভোজ আয়োজনে ব্যয় হবে। কিন্তু পার্টির পক্ষে দেশের অন্যান্য জেলাগুলোর গণভোজের ব্যয় বহন করা সম্ভব হচ্ছে না।’

*এদিকে বৈঠকে উপস্থিত দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, এরশাদের শূন্য আসনে উপনির্বাচন নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। আলোচনায় শূন্য আসনে মনোনয়নের জন্য শাদ এরশাদের নামটি উঠে আসে। এছাড়া বৈঠকে জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে জি এম কাদেরের নাম প্রস্তাব করা হয়। তবে এ বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

*এর আগে বৈঠকের পর দলটির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ‘আগামী ২৩ আগস্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর চল্লিশ দিন অতিবাহিত হবে। ওই দিন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্মাষ্টমী। আর এই দিনটিতে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছিলেন হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। তাই ২৩ আগস্টের পরিবর্তে আমরা ৩১ আগস্ট হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের চল্লিশা পালন করব। ’
মশিউর রহমান রাঙ্গা আরও বলেন, ‘বিরোধী দলীয় নেতা এবং রংপুর-০৩ আসনের উপনির্বাচনের প্রার্থী নির্ধারণ দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী হবে।’