প্রচ্ছদ স্পটলাইট “কেনো তসলিমার বিরুদ্ধে আত্মহ’ত্যায় প্র’রোচনা দেয়ার অভিযো’গ?”

“কেনো তসলিমার বিরুদ্ধে আত্মহ’ত্যায় প্র’রোচনা দেয়ার অভিযো’গ?”

51
কেনো তসলিমার বিরুদ্ধে আত্মহ'ত্যায় প্র'রোচনা দেয়ার অভিযোগ?

*ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশী লেখিকা তসলিমা নাসরিনের বিরুদ্ধে আত্মহ’ত্যায় প্র’রোচনা দেওয়ার অভিযো’গ উঠেছে। ভারতের ক্যাফে কফি ডে প্রতিষ্ঠাতা ভি সিদ্ধার্থ সম্প্রতি আত্মহ’ত্যা করেছেন। এই ধনকুবেরের আত্মহ’ত্যার পরে তসলিমা নাসরিন যেসব টুইট করছেন তা নিয়ে বিত’র্কের ঝ’ড় উঠেছে।

*তসলিমা টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘কেন আপনি ফাঁ’স দিয়ে ঝুলবেন, পানিতে ডুবে মা’রা যাবেন, কেন কব্জি কা’টবেন, কেন সুউচ্চ ভবন বা সেতু থেকে লা’ফিয়ে পড়বেন, কেন কীটনা’শক পান করবেন, কেন বি’ষ পান করবেন, কেন সামনে থেকে ধেয়ে আসা একটি ট্রেনের নিচে ঝাঁ’পিয়ে পড়বেন? প্রাণঘা’তী মরফিনের ডোজ ব্যবহার করুন এবং শান্তিতে মা’রা যান।’

*এ নিয়ে চারদিকে শোরগোল পড়ে যায়। তসলিমা সাধারণ মানুষকে আত্মহ’ত্যার পথ বাতলে দিয়ে তাদের আত্মহ’ত্যায় উদ্বুদ্ধ করছেন বলে অভিযো’গ উঠতে শুরু করে। এর জবাবে তসলিমা লিখেছেন ‘প্রতিদিন মানুষ আত্মহ’ত্যা করছে। মাত্র দুই দিন আগে ক্যাফে কফি ডে’র মালিক একটি ব্রিজ থেকে লাফিয়ে প’ড়েছেন। কি বেদ’নাময় মৃ’ত্যু!’

*এরপরে তিনি আরও টুইট করেছেন। তাতে বলেছেন, তিনি লোকজনকে ম’রতে উৎসাহিত করছেন না। তিনি লিখেছেন ‘যেসব মানুষ আত্মহ’ত্যা করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ অথবা যারা আত্মহ’ত্যা করবেনই তাদেরকে আমি বলছি শান্তিপূর্ণ উপায়ে তা করতে। এটি একটি ইতিবাচক টুইট।’

*উল্লেখ্য, গত সোমবার রাতে নেত্রবতী নদীতে ঝাঁ’পিয়ে প’ড়ে আত্মহ’ত্যা করেছেন সিদ্ধার্থ (৬০)। তিনি নিখোঁজ এ সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট করেন তার গাড়ির চালক। এরপর থেকেই ব্যাপক তল্লাশি অ’ভিযান শুরু হয়। অবশেষে বুধবার সকালে উ’দ্ধার করা হয় তার মৃ’তদেহ। তার মৃ’ত্যুতে সারা ভারতে শো’কের ছায়া নেমে আসে। অনেক খ্যাতনামা ব্যক্তি তার মৃ’ত্যুতে শোক প্রকাশ করেন।