প্রচ্ছদ ইতিহাস-ঐতিহ্য পাকিস্তানের কোন রাজনীতিবিদের কত সম্পদ?

পাকিস্তানের কোন রাজনীতিবিদের কত সম্পদ?

20
পাকিস্তানের কোন রাজনীতিবিদের কত সম্পদ?

ব্যর্থ রাষ্ট্রের তকমা পাওয়া পাকিস্তান বর্তমানে আর্থ সামাজিক সবক্ষেত্রেই রীতিমতো খাবি খাচ্ছে। ক্রিকেট কিং ইমরান খান ক্ষমতায় আসার পর পাকিস্তানিরা ঘুরে দাড়াবার স্বপ্ন দেখেছিল। কিন্তু এর বাস্তবায়ন এখনও দেখতে পায়নি তারা। নিরাপত্তা কিংবা অর্থনৈতিক উন্নয়ন সবকিছুতেই এই অঞ্চলের অন্য দেশগুলোর চেয়ে যোজন যোজন পিছিয়ে পাকিস্তান। বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার কাছ থেকে ধার-দেনা আর আর্থিক সাহায্য, এই করেই চলছে তারা। দেশের এমন বেহাল দশা হলে হবে কি, পাকিস্তানের সব রাজনীতিকরাই অঢেল অর্থ সম্পদের মালিক।
পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশনের (ইসিপি) দেওয়া তথ্যমতে, দেশটির রাজনীতিবিদদের মধ্যে সবচেয়ে ধনী হচ্ছেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) চেয়ারম্যান বিলওয়াল ভুট্টো জারদারি। তার ১৫০ কোটি রুপির সম্পদের হিসাব দেখিয়েছেন তিনি। বলাই বাহুল্য, তার প্রকৃত সম্পদ এর চেয়ে কয়েক গুণ বেশি। এই যেমন, তিনি তার বাড়ির মূল্য দেখিয়েছেন মাত্র ১ লাখ রুপি। অথচ এর প্রকৃত মুল্য কয়েক কোটি রুপি।
বিলওয়ালের বাবা অর্থাৎ পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারির সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৬৬ কোটি রুপি। তার এক কোটি রুপি মূল্যের পশু-পাখি ও ১ কোটি ৬৬ লাখ রুপি মূল্যের অস্ত্রশস্ত্র রয়েছে। এছাড়া, দুবাইয়ে যৌথ মালিকানায় তার দু’টি বাড়ি আছে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, পিপিপির শীর্ষস্থানীয় নেতা খুরশেদ শাহর সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৬ কোটি রুপি। এক্ষেত্রেও বেশ সম্পত্তির মূল্যে বেশ কাটছাটের আশ্রয় নেওয়া হয়েছে বলে জানাচ্ছেন বিশ্লেষকরা।
পাকিস্তানের বিরোধী দলের নেতা শেহবাজ শরীফ তার বিবরণীতে ১৮ কোটি ৯০ লাখ রুপির সম্পদের হিসাব দেখিয়েছেন। এটখানেই অবশ্য শেষ নয়। শেহবাজের দুই স্ত্রী নুসরাত শেহবাজ ও তেহমিনা দুররানির সম্পদ রয়েছে যথাক্রমে ২৩ কোটি ও ৫ কোটি রুপির।
এবার আসা যাক, পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সম্পদ-সম্পত্তির কথায়। তিনি নির্বাচন কমিশনে দেওয়া বিবরণীতে বলেছেন, তার মালিকানায় রয়েছে চারটি ছাগল আর ১০ কোটি ৮০ লাখ রুপি। ইসলামাবাদের অদূরে বানিগালার প্রাসাদোপম একটি বাড়ি তিনি উপহার হিসেবে পেয়েছেন। তার স্ত্রী বুশরা বিবির নামেও বানি গালায় একটি বাড়ি, পাকপত্তন ও ওকারায় জমি রয়েছে। মার্কিন ডলার, ইউরো ও পাউন্ড স্টার্লিং-এ তিনটি বৈদেশিক মুদ্রার অ্যাকাউন্ট রয়েছে ইমরানের। পাশাপাশি, ১৫০ একর কৃষিজমি ও ৫০ হাজার রুপি দামের চারটি ছাগল রয়েছে তার।

ইমরান খান পাকিস্তানের সম্ভ্রান্ত এবং ধনী একটি পরিবারের সন্তান। সম্পদের বিবরণীতে তিনি মাত্র ১০ কোটি রুপির মালিক দেখানোয় অনেকেই অবাক হয়েছেন। বলা হচ্ছে, বানিগালায় তার বিশাল যে বাড়িটি রয়েছে শুধু সেটিরই মূল্য অন্তত ২০ কোটি রুপি। অথচ ইমরান সবকিছু মিলিয়ে সম্পদ দেখিয়েছেন মাত্র ১০ কোটি ৮০ লাখের।
উল্লেখ্য, পাক সংবাদ মাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন গতকাল মঙ্গলবার পাক নেতাদের সম্পদের তথ্য প্রকাশ করেছে। নেতারা নির্বাচন কমিশনে তাদের সম্পদের যে হিসাব দাখিল করেছিলেন সেখান থেকেই এই তথ্য সংগ্রহ করেছে তারা।

সম্পাদক/এসটি