প্রচ্ছদ আইন-আদালত অর্থপাচার মামলায় তারেকের বন্ধু মামুনের ৭ বছরের কারাদণ্ড

অর্থপাচার মামলায় তারেকের বন্ধু মামুনের ৭ বছরের কারাদণ্ড

40
অর্থপাচার মামলায় তারেকের বন্ধু মামুনের ৭ বছরের কারাদণ্ড

লন্ডনে অর্থপাচারের মামলায় তারেক জিয়ার বন্ধু ও ব্যবসায়িক অংশীদার গিয়াসউদ্দিন আল মামুনকে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

পাশাপাশি তাকে ১২ কোটি টাকা অর্থদণ্ডও দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন। এসময় আসামি গিয়াসউদ্দিন আল মামুন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, বিটিএল ও গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালের চেয়ারম্যান এম শাহজাদ আলীর রেলওয়ের সিগন্যালিং আধুনিকীকরণের টেন্ডার পান। কিন্তু কার্যাদেশ চূড়ান্ত করার সময় মামুন তার কাছে অবৈধ কমিশন দাবি করেন। তা না পেলে কার্যাদেশ বাতিল করার হুমকি দেন মামুন। এরপর ২০০৩ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে ৬ কোটি, ১ লাখ ৫৭ হাজার ৭৬২ টাকা দিতে বাধ্য হন শাহজাদ আলী। পরে তা বাংলাদেশ থেকে লন্ডনের ন্যাটওয়েস্ট ব্যাংকে পাচার করেন মামুন।

এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুব আলম, দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান ও মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর। অন্যদিকে আসামি পক্ষে আসাদুজ্জামান, জাহেদুল ইসলাম কোয়েল ও হেলাল উদ্দিন যুক্তিতর্ক তুলে ধরেন।

উলেখ্য, ২০০৭ সালের ৩০ জানুয়ারি গ্রেপ্তার হন গিয়াসউদ্দিন আল মামুন। এরপর থেকে তিনি কারাগারেই রয়েছেন।