প্রচ্ছদ স্পটলাইট ধর্ম অবমাননার অভিযোগে জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার, ফাঁসানোর দাবি

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার, ফাঁসানোর দাবি

197
ধর্ম অবমাননার অভিযোগে জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার, ফাঁসানোর দাবি

ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম ও মহানবীকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে ফরহাদ হোসেন ফাহাদ নামে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ফরহাদকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল ৭টায় পুরান ঢাকার শাঁখারীবাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে মামলার ভিত্তিতে আমরা তাকে গ্রেফতার করেছি। তবে তদন্তের স্বার্থে এর চেয়ে বেশি কিছু বলা আমাদের পক্ষে এখন সম্ভব না।

ফেসবুকে ফরহাদ হোসেন ফাহাদের বক্তব্য:

আমি একজন কুরআনে হাফেজ এবং প্রাক্তন কওমি মাদ্রাসার ছাত্র প্রায় মাওঃ। মাদ্রাসা থেকে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় আসার পর আমি যুগের সেরা জ্ঞানী বিজ্ঞানী এবং মুসলিম মনীষী ও জ্ঞানী- বিজ্ঞানীদের সম্পর্কে জানতে পারি। তারা সকলেই মুক্তচিন্তক দার্শনিক ছিলেন এবং মানবতার গান গেয়েছিলেন এবং মানবতায় অবদান রেখেছেন বলেই আজও তারা স্মরণীয়।

তাই আমিও মুসলিম মনীষীদের গবেষণা করি এবং আমার মুক্তচিন্তাকে প্রকাশ করে মানুষে মানুষে বিভেদ লোপ করার চেষ্টা করি। কিন্তু কিছু উগ্রবাদী শিবির এবং হেফাজতি সমার্থক আমার এই মুক্তচিন্তা বন্ধ করে দেওয়ার জন্য বিভিন্ন চেষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ায় ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আমার নামে ভুয়া আইডি খুলে আমার ছবি দিয়ে মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি করে সেটার স্ক্রিনশট নিয়ে ভাইরাল করছে আমার মুক্তচিন্তা বন্ধ করে দেওয়ার জন্য। সাধারণ মানুষ না জেনে না বুঝে গুজবের মতো এগুলোকেও বিশ্বাস করে ভাইরাল করছে।

তাই আমি সাংবাদিক সমিতি এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে দাবি জানাচ্ছি, যেন এসব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে যেন কোন মৌলবাদীর স্থান না হয়। শতাব্দীর সেরা মুসলিম মনীষী ইবনে সিনা, আল রাজী, ওমর খৈয়াম প্রমুখের বিরুদ্ধেও তৎকালীন সময়ে এমন ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল।