প্রচ্ছদ বিশ্ব পাকিস্তানি বিমান লক্ষ্য করে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে ভারতের নিজ হেলিকপ্টার ধ্বংস

পাকিস্তানি বিমান লক্ষ্য করে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে ভারতের নিজ হেলিকপ্টার ধ্বংস

108
পাকিস্তানি বিমান লক্ষ্য করে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে ভারতের নিজ হেলিকপ্টার ধ্বংস

অনুপ্রবেশকারী পাকিস্তানি জঙ্গি বিমান লক্ষ্য করে ভারতের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে তার নিজের একটি হেলিকপ্টার ধ্বংস হয়। ভারতীয় গণমাধ্যম দ্য ইকোনিম টাইসম এই খবর দিয়েছে।

২৬ ফেব্রুয়ারি ২৫টি পাকিস্তানি জঙ্গি বিমান ভারতের আকাশ সীমা লঙ্ঘনের চেষ্টা করছে বলে জানার পর একটি প্রতিরোধমূলক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়।

সূত্র জানায়, কিন্তু ক্ষেপণাস্ত্রটি লক্ষ্যে আঘাত হানতে মারাত্মক ভাবে ব্যর্থ হয় বলে ঘটনার একমাসেরও কিছু বেশি সময় পর ভারতীয় কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে।

ইকনোমিক টাইমস (ইটি) জানায়, যে একটি এমআই-১৭ ভি ৫ হেলিকপ্টার রুটিন মিশনে আকাশে উড়ার পর বিধ্বস্ত হওয়ার পূর্ব মুহূর্তে একটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। এরপর জল্পনা কল্পনা ছড়িয়ে পড়ে যে ভারত দুর্ঘটনাক্রমে তার নিজের হেলিকপ্টার ধ্বংস করেছে। হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ভারতের বিমান বাহিনীর ৬ জন সৈনিক নিহত হন। এছাড়া ধ্বংসাবশেষের আঘাতে একজন বেসামরিক লোক নিহত হন।

ইটি-র খবরে বলা হয়, কী কারণে দুর্ঘটনা ঘটল তা নির্ধারণের জন্য হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার পূর্ব মুহূর্তে আইএফএফ (পরিচয়, বন্ধু বা শত্রু) ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল কীনা তা সতর্কতার সাথে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পত্রিকার সূত্রসমূহ জানায়, ক্ষেপণাস্ত্রের ত্রুটিপূর্ণ লক্ষ্য ব্যবস্থার কারণে হেলিকপ্টারটিকে মানুষবিহীন হামলাকারী আকাশযান হিসেবে ভুল করে আঘাত করা হয় এমন একটি বিষয় হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের সম্ভাবনার মধ্যে রয়েছে। হেলিকপ্টারটি যখন ভূপাতিত হয় তখন প্রত্যক্ষদর্শীরা এক বিরাট বিস্ফোরণের শব্দ শুনেছেন।

১৭ মিলিয়ন ডলার মূল্যের মজবুত এমআই-১৭ ভি ৫ হেলিকপ্টারটিতে গুরুতর কারিগরি সমস্যা হওয়ার কথা নয়। ২০১২ সালে বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হওয়া প্রথম হেলিকপ্টারগুলোর যন্ত্রপাতি এখনো বেশ নতুন।

বিমান বাহিনীর উচ্চ পদস্থ সূত্রসমূহ ইটিকে বলেন, ইসরায়েলে তৈরি ক্ষেপণাস্ত্রের ত্রুটিপূর্ণ ব্যবস্থার সম্ভাবনা খতিয়ে দেখার পাশাপাশি কোনো সৈনিক এর জন্য দায়ী কিনা তাও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে এ মারাত্মক দুর্ঘটনার জন্য তাকে কোর্ট মার্শালের সম্মুখীন হতে হবে।

পাকিস্তান ভূখণ্ডে সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীদের লক্ষ্য করে ভারতীয় হামলার পর ভারতের আকাশ সীমা লঙ্ঘন করে পাকিস্তানি বিমান হামলার ঘটনা ঘটে।