প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট পাকিস্তান সিরিজেই ফিরছেন স্মিথ-ওয়ার্নার!

পাকিস্তান সিরিজেই ফিরছেন স্মিথ-ওয়ার্নার!

22
পাকিস্তান সিরিজেই ফিরছেন স্মিথ-ওয়ার্নার!

প্রত্যাশার আগেই আনুষ্ঠানিক পুনর্বিবেচনা শুরু হতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের। নিষিদ্ধ ঘোষিত এ জুটি খুব শিগগিরই সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বকাপ সতীর্থদের সাথে একত্রিত হতে যাচ্ছেন।

আগামী ২৩ মার্চ শুরু হতে যাওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) নিজ নিজ ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যোগ দেয়ার আগেই দুবাইতে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে দলের সাথে সাক্ষাৎ ঘঠতে যাচ্ছে স্মিথ ও ওয়ার্নারের।

দীর্ঘ দিন যাবতই ধারণা করা হচ্ছিল শিরোপা অক্ষুন্ন রাখার মিশনে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া দলে থাকবেন এ তারকা জুটি। দলের সঙ্গে তাদের সামনা-সামনি বৈঠক মানে নিশ্চিত করেই বলা যাচ্ছে অসিদের হয়ে বিশ্বকাপ খেলবেন তারা।

স্মিথ ও ওয়ার্নারের নিষেধাজ্ঞা শেষ হতে তিন সপ্তাহ বাকি আছে উল্লেখ করে অস্ট্রেলিয়া দল নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান ট্রেভর হন্স সম্প্রতি বলেছেন, ইনজুরি থেকে মুক্ত হতে পারলে আগামী ২৯ ও ৩১ মার্চ পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের শেষ দুই ওয়ানডেতে খেলবেন স্মিথ ও ওয়ার্নার।

দলের সাবেক অধিনায়ক ও সহ-অধিনায়ককে সেরা একাদশে রাখতে কোনো তাড়াহুড়া করবেন না জানিয়েছেন কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার ও নির্বাচকরা। তাদেরকে ছাড়াই বৃহস্পতিবার দুবাই পৌঁছাবে ১৫ সদস্যের অস্ট্রেলিয়া দল।

তবে দলের সঙ্গে এ সাক্ষাৎ স্মিথ ও ওয়ার্নারকে সাপোর্টিং স্টাফ ও সতীর্থদের সঙ্গে পুনরায় একত্রিত হওয়ার সুযোগ দেবে এবং সম্পর্ক স্থাপনে সহায়ক হবে।

গত বছর মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার কেপ টাউনে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির পর প্রথমবার দলীয় সংস্কৃতির সান্নিধ্য পাচ্ছেন তারা।

কোচ নিযুক্ত হওয়ার পর থেকেই স্মিথ ও ওয়ার্নারের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলে আসছেন ল্যাঙ্গার। এ ছাড়া নিউ সাউথ ওয়েলসের অনুশীলন সেশনে তাদেরকে যুক্ত করা হয়।

স্মিথ-ওয়ার্নারের প্রত্যাবর্তনকে স্বাগত জানিয়েছেন প্যাট কামিন্স। তিনি বলেন, ‘তাদের সঙ্গে একত্রে আমরা অনেক ক্রিকেট খেলেছি। তাদের প্রত্যাবর্তন বিস্ময়কর কিছু নয়। তারা ফিরছেন এটা আমরা অনেক আগে থেকেই জানি।’