প্রচ্ছদ রাজনীতি জাপার রওশন-কাদের বিরোধ নিষ্পত্তির উদ্যোগ!

জাপার রওশন-কাদের বিরোধ নিষ্পত্তির উদ্যোগ!

99
জাপার রওশন-কাদের বিরোধ নিষ্পত্তির উদ্যোগ!

চিকিৎসা শেষে সিঙ্গাপুর থেকে ফিরে ভাবী ও দেবরের মধ্যকার বিরোধ নিষ্পত্তি করলেন জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

নির্বাচনের আগ থেকেই বেগম রওশন এরশাদ এবং জিএম কাদেরের মধ্যে জাপার অভ্যন্তরীণ রাজনীতি নিয়ে কোন রকম বনিবনা হচ্ছিল না। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে রওশন-কাদের বিরোধ চরমে রূপ নেয়।

জাপা চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদকে এককভাবে জিএম কাদের নিয়ন্ত্রণ করতে থাকলে বেঁকে বসেন রওশন এরশাদ। রওশন এরশাদ মনে করেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের সাথে দূরত্ব সৃষ্টির পেছনে জিএম কাদেরের অদৃশ্য হাত রয়েছে। দশম জাতীয় সংসদে বেগম রওশন এরশাদ বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্বে থাকলেও একাদশ জাতীয় সংসদে তিনি ছিটকে পড়েন।

রওশন ঘনিষ্ঠরা মনে করছেন, নেপথ্যে সব কলকাঠি নেড়েছেন জিএম কাদের। আর এসব ঘরের খেলা নিয়ে অভিমান করে জাপার রাজনীতি থেকে নিরাপদ দূরত্বে চলে যান বেগম রওশন এরশাদ। নির্বাচনের পর জাপার কোন পর্যায়ের সাংগঠনিক কোন কার্যক্রমে অংশ নেননি বেগম রওশন এরশাদ। এরশাদ গুরুতর অসুস্থ থাকাবস্থায়ও তাঁকে দেখতে যাননি বেগম রওশন এরশাদ।

বিষয়গুলো নিয়ে জাপার অভ্যন্তরে বেশ আলোচনা থাকলেও বিরোধ নিষ্পত্তিতে কেউ এগিয়ে আসেননি। তবে সিঙ্গাপুর থেকে চিকিৎসা শেষে এরশাদ দেশে ফিরেই ছোট ভাই জিএম কাদেরকে পরামর্শ দিয়েছেন ভাবীর সাথে সু-সর্ম্পক স্থাপনের। জাতীয় সংসদে যাতে কোনভাবেই দুজনের মনোমালিন্য চোখে না পড়ে তা দেখার জন্য তাগিদ দেন বিরোধী দলীয় নেতা এইচএম এরশাদ।

সূত্র জানায়, জিএম কাদের সংসদ অধিবেশন চলাকালেই ভাবী বেগম রওশন এরশাদের সাথে কথা বলবেন। জাপার রাজনীতি দুজনে মিলে এগিয়ে নেবার জন্য যা করনীয় সে বিষয় নিয়েও কথা বলবেন দুজন। তবে মধ্যস্থতায় জাপা মহাসচিব বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা উপস্থিত থাকতে পারেন বলে এরশাদ ঘনিষ্ঠরা জানিয়েছেন।

সম্পাদক/এসটি