প্রচ্ছদ রাজনীতি প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সাক্ষাৎ চান ড. কামাল হোসেন

প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সাক্ষাৎ চান ড. কামাল হোসেন

215
প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সাক্ষাৎ চান ড. কামাল হোসেন

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত সাক্ষাৎ চান। যে সকল রাজনৈতিক দল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল তাদেরকে নিয়ে গতকাল শনিবার বিকেলে চা চক্রের আয়োজন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

কিন্তু সে চা চক্রে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, বাম মোর্চাসহ বেশ কিছু দল যোগ দেয়নি। চা চক্রে যোগ না দিলেও প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চান ড. কামাল।

চা চক্রের আমন্ত্রণ প্রত্যাখানের পিছনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের যুক্তি ছিল- চা চক্রে কোন আলোচনা হবে না। বরং জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট একটি গঠনমূলক ও অর্থবহ সংলাপ চায়। যেখানে নির্বাচন নিয়ে ওঠা অভিযোগগুলোর সুষ্ঠু সমাধানের ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হয়। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর চা চক্রে এ বিষয়ে আলোচনার সুযোগ ছিল না বলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট চা চক্রে যায়নি।

যদিও ড. কামাল হোসেন এই চা চক্রে যাওয়ার পক্ষপাতী ছিলেন। ড. কামাল বলেছিলেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে মতপার্থক্য থাকলেও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা থাকা দরকার। ড. কামাল হোসেন এখন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকার চাইছেন এবং খুব শিগগিরই তিনি এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেবেন বলে জানিয়েছে ড. কামাল হোসেনের ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো।

তবে এ বিষয়টি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ফোরামে আলোচিত হবে কি হবে না তা নিয়ে এখন পর্যন্ত কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। অবশ্য গণফোরামের একজন নেতা বলেছেন যে, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও গণফোরাম দুটি পৃথম সত্ত্বা। গণফোরাম একটি নিজস্ব রাজনৈতিক দল এবং যে কোন সিদ্ধান্ত গণফোরাম এককভাবে নিতে পারে।

গণফোরাম একক কর্মসূচিও করতে পারে। কাজেই ড. কামাল হোসেন যদি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ চান, তাতে যদি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট একমত নাও হয় তারপরও এই সিদ্ধান্ত গণফোরাম এককভাবে নিতে পারে। এখানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ঐক্যে কোন সমস্যা দেখা দেবে বলে গণফোরামের নেতারা মনে করেন না।

সম্পাদক/এসটি