প্রচ্ছদ স্পটলাইট প্রশিক্ষণের আড়ালে সুজনের আওয়ামী লীগ বিরোধী প্রচারণা

প্রশিক্ষণের আড়ালে সুজনের আওয়ামী লীগ বিরোধী প্রচারণা

682
প্রশিক্ষণের আড়ালে সুজনের আওয়ামী লীগ বিরোধী প্রচারণা

সুশাসন প্রতিষ্ঠার আন্দোলন ‘সুশাসনের জন্য নাগরিক- সুজন’ এর নির্বাচনকেন্দ্রিক কিছু তৎপরতা নিয়ে সম্প্রতি আওয়ামী লীগ ও নির্বাচন কমিশনের মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে।

অভিযোগ উঠেছে, সুজন পরিচালিত ভোটারদের প্রশিক্ষণ প্রদান এবং নির্বাচনী সচেতনতা সৃষ্টির কর্মসূচিতে তারা আওয়ামী লীগ সরকারের গত ১০ বছরের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করছে। সম্প্রতি এ ধরনের কয়েকটি প্রশিক্ষণ ভিডিও আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণা সেলের হাতে এসেছে। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘিত হওয়ায় এই ভিডিওগুলো নির্বাচন কমিশনের কাছে হস্তান্তর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণা সেল।

জানা গেছে, নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের হয়ে কাজ করছে সুজন। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী এজেন্ট এবং নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্বাচন সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ দেওয়ার দায়িত্ব পালন করছে প্রতিষ্ঠানটি।

এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, সুজনের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্ট গঠন প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত ছিলেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এই উদ্দেশ্যে গত ১৫ আগস্ট মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটকে তিনি মোহাম্মদপুরে নিজের বাসায় নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানান। সেই নৈশভোজে অংশগ্রহণ করেন ড. কামাল হোসেনসহ নবগঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বর্তমান অনেক নেতা। সেদিনই মূলত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গঠন পরিকল্পনার বীজ অঙ্কুরিত হয় বলে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের ধারণা। এছাড়া বদিউল আলম মজুমদার সবসময়ই আওয়ামী লীগ সরকারের কট্টর সমালোচক হিসেবে পরিচিত।

অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সরকারের নীতি ও কর্মকাণ্ডের ঘোর বিরোধী তিনি। এই নির্বাচনেও বদিউল আলম মজুমদার সরকার বিরোধী অবস্থান নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে কাজ করছেন বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম বলেন, ‘যেহেতু সুজনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতের সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আছে তাই নির্বাচন কমিশনে আমরা তাদের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করব, যাতে তারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণের সুযোগ না পায়।’

সম্পাদক/এসটি