প্রচ্ছদ বাংলাদেশ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হেফাজতে ইসলামের দুই শতাধিক নেতা মনোনয়ন দৌড়ে (তালিকা)

হেফাজতে ইসলামের দুই শতাধিক নেতা মনোনয়ন দৌড়ে (তালিকা)

85
হেফাজতে ইসলামের দুই শতাধিক নেতা মনোনয়ন দৌড়ে (তালিকা)

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়ন যুদ্ধে নেমেছেন অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের দুই শতাধিক নেতা।

মহাজোট বা ২০ দলীয় জোট-ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে নির্বাচনে অংশ নিলেও তাতে সমর্থন থাকবে হেফাজতে ইসলামের। তবে হেফাজতের দাবি, নির্বাচনের সঙ্গে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই। নির্বাচনে হেফাজতে ইসলাম কোনো প্রার্থীকে সমর্থন দেবে না।

হেফাজেত ইসলাম ও ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী বলেন, ‘আমরা মনোনয়নপত্র নেওয়ার আগে হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফীর কাছ থেকে দোয়া ও অনুমতি নিয়েছি। তিনি আমাদের নির্বাচন করার জন্য দোয়া করেছেন। ওনার অনুমতি নিয়েই আমরা নির্বাচন করতে নেমেছি।’

তবে হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, হেফাজতে ইসলাম নির্বাচনে কোনো প্রার্থীকে সমর্থন দেবে না। কোনো জোটের সঙ্গেই হেফাজতে ইসলাম নেই।

হেফাজতে ইসলাম ও ইসলামী ঐক্যজোট নেতা আ ন ম আহম্মদ উল্লাহ বলেন, হেফাজতে ইসলাম কোনো রাজনৈতিক দল নয়। কিন্তু অতীতে যারা হেফাজতে ইসলামের জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছেন, তারা যদি নির্বাচন করে তখন হেফাজতে ইসলামের নেতা-কর্মীরা ওই সব প্রার্থীকে জেতাতে কাজ করবে। এটাই স্বাভাবিক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হেফাজতে ইসলামের এক শীর্ষ নেতা বলেন, ‘এ নির্বাচনে কওমি মতাদর্শী দলগুলোর দুই শতাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র নিলেও হেফাজতে ইসলামের শীর্ষ ১০ নেতাকে জেতাতে মাঠে থাকবে হেফাজতে ইসলামের নেতা-কর্মীরা। তবে তারা সরাসরি হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে মাঠে থাকবে না। কৌশলে এ নেতাদের বিজয়ী করতে কাজ করবে।’

জানা যায়, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ব্যানারে নির্বাচনে অংশ নিতে কওমি মতাদর্শী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দুই শতাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছে। তারা এবার মহাজোট ও বিএনপির নেতৃত্বধীন ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছে। একটি আসনে একাধিক নেতা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন এমন আসন রয়েছে বেশ কয়েকটি।

মনোনয়নপত্র নেওয়া প্রার্থীদের মধ্যে কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতা রয়েছে। মনোনয়নপত্র নেওয়া নেতাদের মধ্যে রয়েছেন নরসিংদী-৩ আসন থেকে হেফাজতের নায়েবে আমির মাওলানা আবদুল লতিফ নিজামী, চট্টগ্রাম-১৬ আসন থেকে মাওলানা মুফতি ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরী,

বি-বাড়ীয়া-৩ থেকে হেফাজত নেতা ও ইসলামী ঐক্যজোটের নায়েবে আমির হাফেজ মাওলানা আবুল হাসনাত আমিনী ও মুফতি ইমরানুল বারী সিরাজী, বি-বাড়ীয়া-২ থেকে মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব, বি-বাড়িয়া থেকে মাওলানা মেহেদী হাসান, চট্টগ্রামের রাঙ্গুনীয়া আসন থেকে মুফতি মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ,

হাটহাজারী আসন থেকে মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী, ঝিনাইদহ-২ আসন থেকে হেফাজতে ইসলামের নেতা মুফতি আরিফ বিল্লাহ, কুমিল্লা থেকে আলতাফ হোসেন ও মির্জা ইয়াসিন আরাফাত, মুন্সিগঞ্জ থেকে আবদুল হামিদ মধুপুরী, ময়মনসিংহ থেকে মুফতি মোহাম্মদ তৈয়ব, যশোর থেকে মাওলানা শহীদুল্লাহ ইনসাফি, ঢাকা-৪ থেকে শাহ আলম, সুনামগঞ্জ-৩ থেকে মাওলানা অ্যাডভোকেট শাহীনুর পাশা চৌধুরী,

নীলফামারী-১ থেকে মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, নারায়ণগঞ্জ-৪ থেকে মুফতি মুনির হোসাইন কাসেমী, নরসিংদী-২ থেকে মাওলানা হেদায়াতেল ইসলাম ও নরসিংদী-৩ থেকে মাওলানা আব্দুর রহিম, নেত্রকোনা-৫ থেকে প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল ওয়াহহাব হামিদী, হবিগঞ্জ-১ থেকে মুফতি সিদ্দিকুর রহমান চৌধুরী, নেত্রকোনা-৪ থেকে মাওলানা রূহুল আমীন নাগরী অন্যতম।

সম্পাদক/এসটি