প্রচ্ছদ বিনোদন যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় পর্নস্টার ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রিয়া অঞ্জলি রাই!

যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় পর্নস্টার ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রিয়া অঞ্জলি রাই!

176
যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় পর্নস্টার ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রিয়া অঞ্জলি রাই!

প্রিয়া অঞ্জলি রাই যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম জনপ্রিয় পর্ন তারকা। ভারতে জন্ম নিলেও পশ্চিমী দুনিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় পর্নস্টার তিনি। আগামী ২৫ ডিসেম্বর প্রিয়া অঞ্জলি রাইয়ের জন্মদিন।

জানা যায়, ১৯৭৭ সালের ২৫ ডিসেম্বর দিল্লিতে জন্ম হয় প্রিয়া অঞ্জলি রাইয়ের। মাত্র ২ বছর বয়সে ভারতীয় কন্যাকে দত্তক নেন আমেরিকার এক দম্পতি। তারাই ছোট থেকে বড় করে তোলেন প্রিয়াকে। পড়াশোনা শেষ করার পর পর্ন স্টার হিসেবে নিজের পরিচিতি গড়ে তোলেন প্রিয়া অঞ্জলি রাই। পর্ন ছবির জগতে পশ্চিমী দুনিয়ায় ঝড় তুললেও, নিজের ভারতীয় নাম বদলাননি প্রিয়া অঞ্জলি।

২০০৭ সাল থেকে পর্ন স্টার হিসেবে পশ্চিমী দুনিয়ায় জনপ্রিয়তার শিখরে ওঠে প্রিয়া অঞ্জলি রাইয়ের নাম। কিন্তু ২০১৩ সাল থেকেই পর্ন ছবির দুনিয়া থেকে বিদায় নিতে শুরু করেন ওই ভারতীয় বংশোদ্ভূত কন্যা। জানা যায়, এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে বর্তমানে সুখেই সংসার করছেন প্রিয়া। তবে এ বিষয়ে মুখে কখনো মুখ খুলেননি প্রিয়া অঞ্জলি।

বিশ্বকে বদলে দেয়ার ২৫ নারীর তালিকায় প্রিয়াঙ্কা

বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ২৫ নারীর তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন। বিশ্বকে সবার জন্যে বাসযোগ্য করে তোলার জন্যে সেসব নারী নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তাদের একটি তালিকা তৈরি করেছে পিপল ম্যাগাজিন। সেই ম্যাগাজিনের তালিকায় সেরা ২৫ স্থান করে নিয়েছেন বলিউডের এই অভিনেত্রী।

বিশ্বকে বদলে দেয়ার ২৫ নারীর তালিকায় আরও রয়েছেন সারাহ উলমান, লীনা ওয়াইথি, বনি হ্যামার, নাজনীন বনিয়াদি, গিনা রডরিগুয়েজ, পেগি উইটসন প্রমুখ। পিপল ম্যাগাজিনের ভাষ্য অনুযায়ী, এই নারীরা মানুষের কল্যাণে কাজ করছেন নিবিড়ভাবে। তারা তাদের কাজের মাধ্যমে নিজেদেরকে অন্য সবার থেকে আলাদা করে তুলেছেন।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বক্তব্য, ‘আমি ঘরে বসে আরামে দিন কাটানোর কথা ভাবিনি। আমি পড়ালেখা করার সুযোগ পেয়েছি। চাকরি করার সুযোগ পেয়েছি। আমি যেভাবে দিন কাটানোর স্বপ্ন দেখি সেখাবে দিন কাটাতে পারি। তবে আমি এসব সুযোগ-সুবিধার মধ্যে নিজেকে আবদ্ধ রাখিনি। আর এটিই আমার জীবনে সব কিছু বদলে দিয়েছে।’

উল্লেখ্য, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে ‘বরফি’র অভিনেত্রী পূর্ণ করলেন এক যুগ। দীর্ঘ সময় তিনি বিশ্বের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্যে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করতে গিয়ে চড়ে বেড়িয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে। এমনকি মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা মুসলিম রোহিঙ্গাদের দুঃখ-দুর্দশা প্রত্যক্ষ করার জন্য বাংলাদেশে এসে চট্টগ্রামের রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেছেন।

সম্পাদক/এসটি

পোস্টে মন্তব্য করে ফেসবুকে শেয়ার করুন