প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় জাফরুল্লাহ’র হুমকি, ‘শুধু ১০ দিন অপেক্ষা করেন, দেখেন কী হয়’

জাফরুল্লাহ’র হুমকি, ‘শুধু ১০ দিন অপেক্ষা করেন, দেখেন কী হয়’

166
জাফরুল্লাহ'র হুমকি, ‘শুধু ১০ দিন অপেক্ষা করেন, দেখেন কী হয়’

আগামী ১০ দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ১০ দিনের মধ্যে দেশের পরিস্থিতি পরিবর্তন হবে।

১০ দিনের মধ্যে দেশের সব বুদ্ধিজীবী ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেবেন। বামপন্থী, আওয়ামীপন্থী সব বুদ্ধিজীবী আসবেন। শুধু ১০ দিন অপেক্ষা করেন, দেখেন কী হয়।

শনিবার বিকেলে চট্টগ্রাম নগরীর নাসিমন ভবনে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী নিজের ছায়া দেখে ভয় পাচ্ছেন মন্তব্য করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, ভয় পাবেন না। ড. কামাল হোসেন আছেন, তিনি আপনাকে রক্ষা করবেন। কামাল হোসেন, ব্যারিস্টার মইনুল আপনাকে আইনি সহায়তা দেবেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কথা ও কাজে মিল নেই। বর্তমান সরকার পাকিস্তানের চেয়েও খারাপ শাসন চালু করেছেন। ভবিষ্যতে ক্ষমতায় এলে আইনের শাসন দেওয়ার জন্য বিএনপি নেতাদের আহ্বান জানান তিনি।

সমাবেশ মঞ্চে আছেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুল মঈন খান, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করছেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন।

এদিন ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ শুরুর প্রায় চারঘণ্টা আগে থেকেই সমাবেশস্থলে আসতে শুরু করেন বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। শুক্রবার রাত থেকে শুরু হয় সমাবেশ মঞ্চ তৈরির কাজ। সমাবেশে অংশ নিতে শনিবার (২৭ অক্টোবর) সকালে চট্টগ্রামে পৌঁছান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামী আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় নেতারা। শুক্রবার রাতেই চট্টগ্রামে আসেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

সকালে চট্টগ্রামে পৌঁছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা নগরীর জেল রোডে আমানত শাহ’র মাজার জিয়ারত করেন।

নগরীর লালদিঘী ময়দানে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কাছে আবেদন করেছিল নগর বিএনপি। তবে পুলিশ লালদিঘীতে সমাবেশের অনুমতি না দিয়ে ঐক্যফ্রন্টকে ২৫ শর্তে নাসিমন ভবনে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের অনুমতি দেয়।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনের পর দ্বিতীয় সমাবেশ চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম সমাবেশ হয়েছে গত ২৪ অক্টোবর সিলেটে।

সম্পাদক/এসটি