প্রচ্ছদ জীবন-যাপন লুটের সেই অর্থেই চলছে লন্ডনে তারেকের বিলাসী জীবনযাপন

লুটের সেই অর্থেই চলছে লন্ডনে তারেকের বিলাসী জীবনযাপন

391
লুটের সেই অর্থেই চলছে লন্ডনে তারেকের বিলাসী জীবনযাপন

তারেক রহমান তথা তারেক জিয়া দীর্ঘদিন ধরেই লন্ডনে বসবাস করছেন। তাকে নিয়ে বিলেতে বাঙালি কমিউনিটি এবং বাংলাদেশে রাজনৈতিক ও সাধারণ জনসমাজে কৌতূহলের শেষ নেই।

বিলেতে এসে এখন পর্যন্ত চিকিৎসাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার যে খরচ সেই খরচ এর যোগান কোথা থেকে আসছে তাও এক রহস্য- বিলেতে অবস্থানরত বাঙালি কমিউনিটির কাছে।

বিশেষ করে তার রাজকীয় চলাফেরার খবর অনেকের কাছেই রয়েছে। অনেকের মনে প্রশ্ন- যেখানে তৎকালীন পাকিস্তানের সামরিক শাসক ইস্কান্দার মির্জা ক্ষমতাচ্যুত হয়ে এই লন্ডনে এসে হোটেলে ম্যানেজারের চাকরি করে দিন যাপন করেছেন, উগান্ডার ইদি আমিন, ইরানের রেজা শাহ পাহলভী প্রচণ্ড অর্থকষ্টে জীবন কাটিয়েছেন বিদেশের মাটিতে, সেখানে তারেক রহমান বিনা আয়ে এমন রাজকীয়ভাবে লন্ডনের মতো ব্যয়বহুল শহরে চলেন কীভাবে সেটা অনেকেরই কৌতুহল।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান মাসোহারা নেন জামায়াত মালিকানাধীন কিছু প্রতিষ্ঠান এবং বিএনপি ও জামায়াত সমর্থিত বেশ কিছু ধনাঢ্য শিল্পপতি, ব্যবসায়ী এবং ২০ দলীয় জোটের কতিপয় নেতার কাছ থেকে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারেক রহমানকে মাসোহারা দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন অনেকেই।

জানা যায়, তারেক রহমানকে মাসোহারা দেয়ার তালিকায় আছেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর বড় ছেলে তাবিথ আউয়াল। তাবিথ আউয়াল প্রতি মাসে ৫ লাখ টাকা পাঠান তারেক রহমানের কাছে।

এ বিষয়ে তাবিথ আউয়ালের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। গুঞ্জন রয়েছে, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এর গত নির্বাচনে তাবিথ আউয়ালকে বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেয়ার বিনিময়ে তার কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নেন ‘মিস্টার টেন পার্সেন্ট’ ওরফে তারেক রহমান।

যুক্তরাজ্য যুবলীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী লন্ডনে তারেক রহমানের বিলাসী জীবন যাপন সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, ‘মানি ইজ নো প্রবলেম’ বলে খ্যাত সেনা শাসক জিয়াউর রহমান রাজনৈতিক অঙ্গনে কেনাবেচার রাজনীতির সূচনা করেছিলেন। স্বগর্বে তিনি ঘোষণা করেছিলেন রাজনীতিবিদদের জন্য রাজনীতি চর্চা কঠিন করে ছাড়বেন। সে ধারা অক্ষুণ্ণ রেখে তারেক রহমান একই পথ অনুসরণ করেন। রাষ্ট্রীয় অর্থ সম্পদ লুটপাট করে তিনি বাংলাদেশে অনৈতিক রাজনীতি চর্চার সূচনা করেন। হাওয়া ভবনকে ক্ষমতার ভরকেন্দ্র করে তারেক-কোকো-মামুন এতিমের টাকা পর্যন্ত আত্মসাৎ করে বিপুল পরিমাণ অর্থ বিদেশে পাচার করেছেন। লুটের সেই অর্থেই চলছে তাদের বিলাসী জীবনযাপন।

সম্পাদক/এসটি

পোস্টে মন্তব্য করে ফেসবুকে শেয়ার করুন