প্রচ্ছদ বিশ্ব কন্যা ইভাঙ্কাকে ‘ডিনামাইট’ বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

কন্যা ইভাঙ্কাকে ‘ডিনামাইট’ বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

69
কন্যা ইভাঙ্কাকে 'ডিনামাইট’ বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

প্রায় নিয়মিতই বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে আলোচনা ও সমালোচনায় থাকা তার স্বভাব। তা সে বিরোধীদের সম্পর্কেই হোক বা প্রশাসনিক প্রধান সম্পর্কে। তালিকা থেকে বাদ যায় না নিজের পরিবারের সদস্যরাও।

মুখ খুললেই বিতর্ক তৈরি করা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দৈনন্দিন বিষয় হয়ে উঠেছে। প্রায় প্রতিদিনই সংবাদের শিরোনামে থাকেন তিনি। এবারও একইভাবে নিজের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। নিজের মেয়েকে ‘ডিনামাইট’এর সঙ্গে তুলনা করলেন তিনি।

জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন নিকি হ্যালি। মঙ্গলবার তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আচমকাই হ্যালির এ সিদ্ধান্তে রীতিমতো তোলপাড় মার্কিন কূটনৈতিক মহল। শুরু হয়েছে প্রবল জল্পনা। এমন পরিস্থিতিতে নিজের মেয়েকে জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসাবে নিযুক্ত করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন ট্রাম্প। যদিও পরে নিজেকে শুধরে নেন তিনি।

বলেন, এমন কোনো পদক্ষেপ নিলেই বিরোধীরা স্বজনপোষণের অভিযোগে সরব হবে। নিজের এই সুপ্ত ইচ্ছা প্রকাশ করার সময়ই ইভাঙ্কাকে ‘ডিনামাইট’ বলে সম্বোধন করেন ট্রাম্প।

তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসাবে ইভাঙ্কা ‘ডিনামাইট’এর মতো কাজ করতে পারবে। তবে আমি বলছি না যে আমি তাকেই নিযুক্ত করব। কারণ তাহলে অনেকেই ‘নেপোটিজম’ নিয়ে সরব হবে।’

উল্লেখ্য, কূটনীতি ও বিদেশনীতির বিষয়ে অত্যন্ত স্বল্প অভিজ্ঞতাসম্পন্ন নিকি হ্যালির নিয়োগ আগেই আমেরিকায় বিতর্ক উসকে দিয়েছিল। সম্প্রতি প্যালেস্তাইন ইস্যুতে তার বক্তব্যে বিশ্বজুড়ে আলোচনা শুরু হয়। চলতি বছরের এপ্রিলে রাশিয়ার ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে কিছুটা বিবাদে জড়িয়ে পড়েন হ্যালি।

হোয়াইট হাউসের বাণিজ্য উপদেষ্টা ল্যারি কুডলি বলেছিলেন, হ্যালি তার নিজের একতিয়ারের বাইরে গিয়ে কথা বলছেন। কূটনীতিবিদরা মনে করছেন ট্রাম্পের সঙ্গে মতবিরোধের জন্যই নিকির পদত্যাগ।

সম্পাদক/এসটি