প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট মার্কিন পর্ন তারকার নজরে পড়লেন বিরাট কোহলি

মার্কিন পর্ন তারকার নজরে পড়লেন বিরাট কোহলি

246
মার্কিন পর্ন তারকার নজরে পড়লেন বিরাট কোহলি

এবার পর্ন তারকার নজরে পড়লেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নামী নীল ছবি তারকা অভিনেত্রী রিচেল রায়ান বিরাট কোহলির একটি উদ্ধৃতি নিজের টুইটারে শেয়ার করেন।

তার পরেই ভাইরাল হয়ে যায় সে়টি।

‘আত্মবিশ্বাস ও কঠিন পরিশ্রম মানুষের জীবনে সাফল্য এনে দিতে পারে’-বিরাট কোহলির এই বিখ্যাত উদ্ধৃতিটি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেন রিচেল। সেই টুইটটি রিটুইটও করেন প্রচুর ভারতীয়। সেই সঙ্গে অনেকে টুইটটি নিয়ে হাসি-ঠাট্টাতেও মাতেন।

প্রসঙ্গত, এই পর্ন তারকা মার্কিন মুলুকে যথেষ্ট বিখ্যাত। টুইটার পেজে তার ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় আড়াই লক্ষ। এমন নীল ছবির অভিনেত্রীর আচমকা বিরাট কোহলির উদ্ধৃতি শেয়ার করা ঘিরেই এখন চর্চা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে। যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত বিরাট কোহলি কোন প্রতিক্রিয়া জানাননি।

ভেন্যুর জন্যই পাকিস্তানের কাছে হোয়াইওয়াশ হয়েছে মেয়েরা

সদ্য শেষ হওয়া পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের চার ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজে ৩-০ হেরে হোয়াইওয়াশ হয়েছে। আর এ জন্য ভেন্যুকে দায় করা হচ্ছে। যে কারণে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচ পরিত্যাক্ত হয়। যে কারণে কক্সবাজার স্টেডিয়ামে নেই কোনো ড্রেনেজ ব্যবস্থা। মাঠটিকেও কোনো ভাবে খেলার উপযোগী নয়।

এদিকে বোমা ফাটিয়েছেন বিসিবির নারী উইংয়ের চেয়ারম্যান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। তিনি জানিয়েছেন বিসিবির কাছে ভালো মানের ভেন্যু চেয়েও পাননি তারা। তাই বাধ্য হয়েই নারী দলকে খেলতে হচ্ছে কক্সবাজার স্টেডিয়ামে।

তিনি বলেন, ‘নারী উইংস থেকে আমরা চেষ্টা করেছি এবং কথা বলেছি। আমাদের চাওয়া ছিল আরো ভালো একটা মাঠ যেখানে আরো বেশি সুযোগ সুবিধা থাকবে। ভবিষ্যতে নিশ্চয়ই আমরা চেষ্টা করবো।’

পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ নারী দলের প্রথম টি-টুয়েন্টি ম্যাচ বাতিল হয়। আরেকটি ম্যাচ হয়েছে কার্টেল ওভারে। নারী উইয়ের চেয়েরম্যান মনে করেন বৃষ্টি না হলে এনিয়ে কোনো আপত্তি থাকত না।

তিনি বলেন, ‘ভারী বর্ষণের কারণে একটি খেলা বলতে গেলে হয়ই নি এবং দ্বিতীয় দিন যে খেলাটা হল সেটাও কিন্তু আংশিক। এই জন্য আমাদের যে মূল লক্ষ্য ছিল সেই জায়গা থেকে আমরা কিছুটা হলেও পিছিয়ে পড়েছি। এখানে তো আসলে আমাদের কিছু করার ছিল না। বৃষ্টি যদি না হত তাহলে হয়তো কোন ধরণের আপত্তি এই জায়গা নিয়ে থাকতো না।

সম্পাদক/এসটি