প্রচ্ছদ খেলা বোনের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, ক্যারিয়ার গড়তে মাকে হত্যা!

বোনের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, ক্যারিয়ার গড়তে মাকে হত্যা!

সাবেক ফুটবলারের বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি

157
বোনের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, ক্যারিয়ার গড়তে মাকে হত্যা!

নিজের বোন ও চাচার স্ত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন। নিজের মাকে হত্যা করেছিলেন ক্যারিয়ারের স্বার্থে। সাবেক গ্যাবন ফুটবলার শিবা এন জিঘোউয়ের বিস্ফোরক স্বীকারোক্তিতে তোলপাড় ফুটবল দুনিয়া।

ফ্রান্সের ঘরোয়া ফুটবলে লিগ ওয়ানে ২০০১ থেকে ২০০৫ পর্যন্ত এফসি নান্তেসের হয়ে খেলেছেন তিনি। রেইমস, ভার্তন, নামুরের মতো ক্লাবেও খেলেছেন। ২০০০ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত গ্যাবনের জাতীয় দলের হয়েও নিয়মিত খেলেছেন। জাতীয় দলের হয়ে রয়েছে পাঁচটি গোলও।

শিবার একটি ভিডিও ফুটেজ ব্রিটেনের ‘‌ডেইলি স্টার’‌। যেখানে দেখা গেছে শিবা বলছেন, তার ফুটবল ক্যারিয়ার প্রতিষ্ঠিত করার জন্যই মাকে হত্যা করতে হয়েছিল। ‌নিজের চাচার স্ত্রীর সঙ্গে আমার শারীরিক সম্পর্ক ছিল। বোনের সঙ্গেও ছিল এমন সম্পর্ক। এছাড়াও দুই পুরুষের সঙ্গে আমার সম্পর্ক ছিল।’‌

সমকামী শিবা ১৯৯৯ সালে ফুটবল ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। নান্তেসের যুব দলে খেলেছেন ৯৯ থেকে ২০০৩ পর্যন্ত। যেখানে ৩৩ ম্যাচে করেছেন ১১ গোল। জাতীয় দলের হয়ে ২৪ ম্যাচে আছে পাঁচ গোল। সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে আফ্রিকান নেশনস কাপে খেলার কৃতিত্ব রয়েছে তার।

২০০০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে আফ্রিকান নেশনস কাপে অভিষেক ম্যাচে গ্যাবনের শিবার বয়স ছিল ১৬ বছর ৯৩ দিন। তিনি অবসর নেন ২০১৬ সালে। এদিকে সেই ভিডিওয় শিবা বলেছেন, তার আসল বয়স ৩৯। তার জন্মসনদ পত্রে মা-বাবাই জন্মতারিখ ভুল লিখেছিলেন। শিবার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। যা নিয়ে চলছে ব্যাপক চর্চা।

১৪ মাস ছুটিতে থেকেও সবচেয়ে বেশি আয় সেরেনার

মাতৃত্বজনিত কারণে ১৪ মাস টেনিস থেকে দূরে ছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। তারপরও মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস প্রকাশিত সেরা ধনী নারী খেলোয়াড়ের তালিকায় টানা তৃতীয়বারের মতো শীর্ষস্থানে রয়েছে তার নাম। এ বছর তার মোট আয় ১৮.১ মিলিয়ন ডলার।

এর মধ্যে তার পুরস্কার থেকে পাওয়া অর্থ হলো মাত্র ৬২ হাজার ডলার। বাকি ১৮ মিলিয়নই সেরেনা আয় করেছেন বিভিন্ন বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে। এছাড়া গত মে মাসে তিনি চালু করেছেন নিজের ফ্যাশন কালেকশন। সেখান থেকেও আয় হয়েছে সেরেনার।

সেরা ধনী নারী খেলোয়াড়ের বেশিরভাগই টেনিসের সঙ্গে যুক্ত। তালিকায় সেরেনার পরের স্থানে আছেন ক্যারোলিন ওজনিয়াকি (১৩ মিলিয়ন ডলার), স্লোয়ান স্টিফেন (১১.২ মিলিয়ন ডলার), গারবিনে মুগুরুজা (১১ মিলিয়ন ডলার), মারিয়া শারাপোভা (১০.৫ মিলিয়ন ডলার), ভেনাস উইলিয়ামস (১০.২ মিলিয়ন ডলার), পিভি সিন্ধু (৮.৫ মিলিয়ন ডলার), সিমোনা হালেপ (৭.৭ মিলিয়ন ডলার), ড্যানিকা প্যাট্রিক (৭.৫ মিলিয়ন ডলার), অ্যাঞ্জেলিক প্যাট্রিক (৭ মিলিয়ন ডলার)।