প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সব অর্থ দিয়েছেন তারেক: শাজাহান খান

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সব অর্থ দিয়েছেন তারেক: শাজাহান খান

37
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সব অর্থ দিয়েছেন তারেক: শাজাহান খান

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর কয়েকদিন ধরে রাজধানীতে শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করেছিল, বিএনপি নেতা তারেক রহমান সেই আন্দোলনের টাকা যোগান দিয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন নৌপরিবহনমন্ত্রী ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাজাহান খান।

বৃহস্পতিবার (০৯ আগস্ট) সকালে মাদারীপুর জেলা পরিষদের হলরুমে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শাজাহান খান বলেন, ঢাকায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় দেশে যে নৈরাজ্যের আন্দোলন সৃষ্টি হয়েছিল, তার সব অর্থ লন্ডনে বসে জোগান দিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

তিনি বলেন, বিএনপি এখন আর রাজনৈতিক দল নয়, এটি এখন একটি পরগাছা দলে পরিণত হয়েছে। তারা নিজেরা কোনো আন্দোলন করতে পারে না। দেশে কোনো একটি ঘটনা ঘটলেই সেটিকে উসকে দিতে চেষ্টা করে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে নৌমন্ত্রী বলেন, তোমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় মানুষ হতে হবে। এই চেতনায় মানুষ হয়ে ভবিষ্যতে দেশ পরিচালনা করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা না থাকলে এই বাংলাদেশ আর বাংলাদেশ থাকবে না।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালদার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, জেলা পরিষদের প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান লস্কর, সদস্য আমেনা খাতুন বেবী, ফারুক খান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই দুপুরে বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাসের চাপায় শহীদ রমিজউদ্দীন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। ঘটনার পর নৌমন্ত্রী শাজাহান খান সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হাসতে হাসতে বিষয়টিকে নিয়ে বিদ্রুপাত্মক মন্তব্য করেন। এর প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা প্রায় এক সপ্তাহের মতো রাজধানীতে টানা বিক্ষোভ দেখায়।

আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা ছিল আর্ন্তজাতিক ষড়যন্ত্রের একটি অংশ। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে রুখে দেয়াই ছিল তাদের উদ্দেশ্য। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে একটি কুচক্রি মহল কাজ করছে। এ মহলটির বিষয়ে সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

মন্ত্রী বৃহস্পতিবার দুপুরে ফরিদপুরের বদরপুরস্থ আফসানা মঞ্জিলে জেলা যুবলীগের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এসব কথা বলেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী আরো বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সন্নিকটে। এ নির্বাচনে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে জেতাতে সবাইকে নিয়ে মাঠে থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ফরিদপুর জেলা অবহেলিত ছিল। সেই অবহেলিত ফরিদপুর জেলাকে উন্নত জেলায় রুপান্তরিত করা হয়েছে গত কয়েক বছরের উন্নয়ন দিয়ে। উন্নয়নের দিক দিয়ে ফরিদপুর জেলা সারাদেশের মধ্যে পঞ্চম স্থানে রয়েছে। আগামীতে উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হলে আওয়ামী লীগকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে হবে।

জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা ও তৃণমূল নেতাদের সাথে মতবিনিময়ের এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা যুবলীগের আহবায়ক এ এইচ এম ফোয়াদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর জামাতা খন্দকার মাশরুর হোসেন মিতু, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ঝর্না হাসান, কোতয়ালী আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ রাজ্জাক মোল্যা, শহর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বরকত ইবনে সালাম,স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শওকত আলী জাহিদ, শ্রমিক লীগের সভাপতি আক্কাস হোসেন, কোতয়ালী যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান,সাধারন সম্পাদক এম আর হক, শহর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চৌধুরী মোঃ হাসান, ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।